স্বাধীনতা দিবসে নিজের বুটজোড়া তুলে রাখলেন ধোনি

1 min read

।। শুভব্রত মুখার্জি ।।

২০১৯ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে কিইউয়িদের বিপক্ষে ২২ গজে শেষ বার দেখা গেছিল তাকে। তারপর অনেকদিন প্রফেশনাল ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছিলেন তিনি। দেশের অন্যতম সেরা অধিনায়ক তিনি। তিনি মহেন্দ্র সিং ধোনি। দেশের জার্সি পরে তাকে যে আর কোনদিন খেলতে দেখা যাবে না তা হয়ত আশা করেননি তার অতি বড় শত্রু ও।

রিভিউ নেওয়ার হোক বা ফিল্ড সাজানো ঠান্ডা মাথার লোকটার পরামর্শ আর ২২ গজে কোনদিন পাবেননা ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।আর কোনদিন দেখা যাবে না হেলিকপ্টার শটে বল বাউন্ডারির বাইরেও যাচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় সময় সন্ধে ৭:২৯ মিনিটে নিজেই নিজের অবসরের কথা ঘোষণা করে দিলেন মাহি। ২০০৭, ২০১০, ২০১১, ২০১৩, ২০১৬ সালে তার হাত ধরে জেতা একের পর এক আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট জয়ের স্মৃতিতে তিনি ধরা থাকবেন সমর্থকদের মনে।

ইনস্টাগ্রামে নিজেই ১৩০ কোটি ভারতীয়কে তার অবসরের আবর দিলেন ধোনি।লিখলেন “আপনাদের ভালবাসার জন্য অনেক ধন্যবাদ। ৭টা ২৯মিনিট থেকে আমি অবসর নিলাম।” জাতীয় দলের জার্সিটাও খুলে ফেললেন আচমকাই। তবে স্বস্তি একটাই। আন্তর্জাতিক কেরিয়ারকে বিদায় জানালেও আইপিএল খেলবেন তিনি।

২০০৪-এ চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল তার।সে ম্যাচেও শূন্য করেই রানআউট হয়ে ফিরেছিলেন ধোনি। আর জীবনের শেষ ম্যাচে ও ৫০ করে রান আউট হয়ে ফিরতে হল তাকে। ১৬টা বছর কেটে গিয়েছে।ঝাড়খণ্ডের ধোনি পেয়েছেন সেরা ফিনিশারের তকমা। উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে একাধিক রেকর্ড গড়েছেন।

২০০৭-১৬- সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নেতৃত্ব দিয়েছেন ভারতকে। টি-২০ বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, এশিয়া কাপ থেকে ওয়ানডে বিশ্বকাপ সব জিতেছেন দেশের জার্সি গায়ে।