Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

দীপেন্দু-সোনালী-জটু-শীতল দলত্যাগী চার বিধায়কই এবার বিজেপির ব্ল্যাক হর্স

।। ময়ুখ বসু ।।


রাজ্যে ভোটপর্ব চলার মধ্যেই শাসক দলের ঘাসফুল শিবিরে বড়োসড়ো ধাক্কা দেওয়ার পন্থা নিল বিজেপি। এবারে তৃণমূল ত্যাগী সোনালী গুহ, দীপেন্দু বিশ্বাস এবং শীতল সর্দারদের নিয়ে বড় পদক্ষেপের পথে হাঁটল বিজেপি। আর এই পদক্ষেপের জেরে আগামী কয়েক দফার ভোটে বিজেপি অনেকটাই আডভান্টেজ আদায় করে নিতে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল। ভোট পর্ব চলাকালীন এবারে এই তিন তৃণমূল ত্যাগীদের বিজেপির রাজ্য কমিটির স্থায়ী আমন্ত্রিত সদস্য করে নেওয়া হল। একই পদ দেওয়া হয়েছে তৃণমূল ত্যাগী জটু লাহেড়িকেও।

ফলে ভোটের ময়দানে তৃণমূল ত্যাগীদের পদ দিয়ে বিজেপি ঘাসফুলে নতুন করে ঝাটকা দেওয়ার কৌশল নিল। এখন থেকে বিজেপি পদ পাওয়ার ফলে সোনালী, দীপেন্দু, শীতল বা জটু লাহেড়িদের দেখা যাবে বিভিন্ন কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীদের হয়ে ভোট প্রচারেও। তারা বিজেপির পদ পেয়ে এবার সক্রিয়ভাবে বিজেপির ভোট প্রচারে নেমে পড়বেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে বিজেপির পদ পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই খুশি দীপেন্দু বিশ্বাস বা সোনালি গুহরা। তারা বিজেপির প্রার্থী হতে না পারায় তেমন আক্ষেপ দেখাননি। বরং বর্তমানে বিজেপির পদ পেয়ে সম্মানিত বোধ করছেন। এদিকে রাজ্য তিন দফা ভোটপর্ব শেষের পথে গেলেও এখনও বাকি পাঁচ দফা।

আরো পড়ুন : ‘ভোটাররা ভোট দিতে যাচ্ছেন সেখানে ওঁদের মারধর করা হচ্ছে’, সন্ত্রাসের অভিযোগ অসীমার

আর এই পাঁচ দফা ভোটের আগে সোনালি, দীপেন্দু, শীতল ও জটু লাহেড়িদের পুরোমাত্রায় ব্যবহার করতে চাইছে বিজেপি। মূলত এই তৃণমূল ত্যাগী হেভিওয়েটরা বিজেপিতে যোগদানের সময়েই জানিয়ে দিয়েছিলেন, তারা নির্বাচনে পদের লোভে শুধুমাত্র বিজেপিতে আসছেন না। তাঁরা চান সম্মানের সঙ্গে রাজনীতি করতে। আর সেই সম্মনের জায়গায় তুলে এনে বিজেপি চাইছে ভোটের বাজারেই নতুন করে তৃণমূলে আঘাত হানতে। রাজনৈতিক মহলের মতে, আগামী ভোটগুলির আগে প্রচারের ময়দানে সোনালি দীপেন্দুদের নিয়ে আসে মূলত দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম জেলা উত্তর ২৪ পরগনা, নদীয়া, বর্ধমান ও বীরভূমের পাশাপাশি ও কলকাতার বুকে তৃণমূলকে চাপে ফেলতে চাইছে।

এই জেলাগুলিতে বরাবরই তৃণমূলের শক্তি ভালো জায়গায় রয়েছে। ফলে তৃণমূলের শক্তি ক্ষয় করতে গেলে বিজেপিকে যে নয়া পন্থা নিয়ে এগোতে হবে তা মেনে নিয়েছেন রাজনৈতিক মহল। আর সেক্ষেত্রে দাঁড়িয়ে শেষ পাঁচ দফা ভোটের আগে কলকাতা ও দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে তৃণমূলকে নাড়িয়ে দিতে এখন বিজেপির ব্লাক হর্স হতে চলেছেন সোনালী দীপেন্দুরা। আর সেই কারণেই হয়তো ভোট পর্বের মধ্যেই তাদের দলীয় পদে এনে নতুন করে আরও একধাপ শক্তি বাড়ানোর পন্থা নিল বিজেপি।

পিসিসি