সনাতন ধর্ম নিয়ে কটূক্তি, ডা. জাফরুল্লাহ’র বিরুদ্ধে মামলা

।।চট্টগ্রাম ব্যুরো, বাংলাদেশ।।

সনাতন ধর্ম, রামায়ণ ও মহাভারতকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের একটি আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।বুধবার (১৯ আগস্ট) মহানগর হাকিম আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন চট্টগ্রামের বিশ্ব সনাতন ঐক্যের সমন্বয়ক বিপ্লব দে।

তিনি জানান, সম্প্রতি এক সমাবেশে সনাতন ধর্ম, ধর্মগ্রন্থ ও হিন্দু ধর্মের প্রবর্তক রামকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন। তিনি রামায়ণ ও মহাভারত নিয়ে কটূক্তি করেছেন। এজন্য বিশ্ব সনাতন ঐক্যের পক্ষ থেকে সমন্বয়ক হিসেবে মামলা করেছেন বলে জানান বিপ্লব দে।মামলাটি গ্রহণ করলেও আদালত এখনও কোন আদেশ দেননি বলে জানিয়েছেন বাদিপক্ষের আইনজীবী মিথুন বিশ্বাস। তিনি বলেন, আদালতের বিচারক এ বিষয়ে পরে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৯ আগস্ট জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ভাসানী অনুসারী পরিষদ আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘সম্প্রতি ঈদ গেল। অথচ আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশে ২৫ কোটি মানুষ তাদের নিজের ধর্ম পালন করতে পারেনি। তারা গরুর মাংস খেতে পারল না। অথচ হিন্দুরা, চিরকাল নরেন্দ্র মোদির পূর্বপুরুষরা গরুর মাংস খেত। চোখ অন্ধ ভারত ২৫ কোটি মুসলমানকে ধর্ম পালন করতে দিচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘একটা কাল্পনিক কাহিনিকে ভিত্তি করে ভারত রাম মন্দির প্রতিষ্ঠা করেছে। মহাভারত, রামায়ণ দুটোর মধ্যেই প্ররোচনা ও মিথ্যাচারের গল্পকাহিনি রয়েছে। তাদের গল্পকাহিনির ওপর ভিত্তি করেই ৫০০ বছরের পুরোনা বাবরি মসজিদ ভেঙে সেখানে আজগুবি রাম মন্দির নির্মাণ করেছে ভারত। এটা ভারত জাতির জন্য একটা দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। আমরা বাংলাদেশের মানুষ এর বিরুদ্ধে একটা কথাও বলিনি।’