করোনা টেস্ট নিয়ে প্রতারণা, গ্রেফতার ৩

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

খাস কলকাতার বুকে ধরা পরলো করোনা পরীক্ষার নাম করে প্রতারণা চক্র। এই ঘটনায় নেতাজিনগর থানার পুলিশ এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালের অভিযোগের ভিত্তিতে ৩ জনকে আটক করেছে। অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে প্রথমে তারা অস্বীকার করলেও পরে পুলিশের কাছে সব স্বীকার করে নেয়।

কয়েকদিন আগেই মধ্যবয়স্ক এক করোনা রোগী সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে ভরতি হতে যান। তিনি
হাসপাতালে গিয়ে তাঁর কোভিড পরীক্ষার একটি রিপোর্ট দেখান। সেই রিপোর্টে থাকা একটি নম্বর দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়। তখনই নেতাজিনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিস জানতে পারে, একাধিক ব্যাক্তিকে একই ভাবে করোনা টেস্টের নাম করে ঠকানো হয়েছে। এরপরই ফোন নম্বরের সূত্র ধরে নমুনা সংগ্রহ করা অনিত পাড়িয়া নামে যুবককে পুলিশ গ্রেফতার করে। অনিতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই চক্রের আরো দুই পাণ্ডা ইন্দ্রজিৎ ও বিশ্বজিৎকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গেছে, চক্রের সঙ্গে যুক্ত তিনজনের মধ্যে একজন এসএসকেএম এবং একজন আরজি কর হাসপাতালের ল্যাব-এর চুক্তিভিত্তিক কর্মী হিসেবে কর্মরত। পুলিশি জেরায় অভিযুক্তরা কী ভাবে রোগী ও তাঁদের পরিবারের লোকেদের সঙ্গে প্রতারণা করতো তাও স্বীকার করে নেয়। জেরায় ধৃতরা তাদের তৈরি ওয়েবসাইটের কোথাও স্বীকার করে নেয়।

আইসিএমআরের করোনা পরীক্ষার একটি ফর্ম জেরক্স করেই প্রতারকরা এই চক্র চালাচ্ছিল। এই চক্রের পান্ডারা হাসপাতালে গিয়ে রোগী ও তাঁদের পরিবারের লোকেদের কম খরচে কোভিড টেস্ট করানোর কথা বলতো। যারা তাদের পাতা ফাঁদে পা দিতেন তাঁদের ভুয়ো করোনার রিপোর্ট দিত। এভাবেই এই চক্র কাজ করতো। ধৃতদের তৈরি ওয়েবসাইটে বলা হয়েছিল, বেসরকারি কোনো ল্যাব থেকে টেস্ট করিয়ে তারা ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অনলাইনে করোনার রিপোর্ট দিয়ে দেবে।