Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

করোনায় নাস্তানাবুদ দেশ, তবুও আইপিএল আয়োজন!

।।প্রথম কলকাতা।।

দেশে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আশঙ্কাজনকভাবে করোনা রোগী বাড়ে যাওয়ায় ইতোমধ্যে মহারাষ্ট্র লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এমন অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে আসন্ন আইপিএল আয়োজন নিয়ে। কিন্তু করোনার ভয়াল থাবা সত্ত্বেও টুর্নামেন্ট চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন আয়োজকরা।

করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে টুর্নামেন্ট চললেও দুশ্চিন্তা কিছুটা থেকেই যাচ্ছে আয়োজকদের। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) সব খেলোয়াড়ের ভ্যাকসিন দিতে পারছে না। মাঠে নামার আগে ক্রিকেটারদের জন্য ভ্যাকসিনের আবেদন করেছিলেন তারা। কিন্তু মহারাষ্ট্র সরকারের পক্ষ থেকে তাদের সে নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি।

এবারের আইপিএল মাঠ গড়াবে ছয়টি ভেন্যুতে। প্লে অফ এবং ফাইনাল হবে আহমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে। তবে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মুম্বাইয়ের ভেন্যু। সেখানে প্রতিনিয়তই বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। আর তাই লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে প্রশাসনকে।

আগামী শুক্রবার (৯ এপ্রিল) থেকে সোমবার (১২ এপ্রিল) পর্যন্ত লকডাউন কার্যকর থাকবে সেখানে। তাই প্রশ্ন উঠেছে আইপিএলের কী হবে? মহারাষ্ট্রের অন্তর্ভুক্ত মুম্বাইয়ে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএলের ১০টি ম্যাচ। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে ম্যাচগুলোর ভবিষ্যত কী? এমন প্রশ্নে মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন আশ্বস্ত করেছে, লকডাউনের প্রভাব পড়বে না খেলায়। লকডাউন সত্ত্বেও সেখানে খেলার বিষয়ে সবুজ সংকেত দিয়েছে মহারাষ্ট্র প্রশাসন এবং বিসিসিআই।

মহারাষ্ট্র প্রশাসনের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, দর্শক ছাড়াই অনুষ্ঠিত হবে খেলা। এছাড়া খেলোয়াড়দের কোভিডের সব প্রটোকল মেনে নামতে হবে মাঠে।

পিসি ডব্লিউ