Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘কন্যাশ্রী মেয়েদের ডেকে নিন ওরা লড়াই করবে ‘, আরও এক নতুন দাওয়াই মমতার

।। প্রথম কলকাতা ।।

হুগলির কোন্নগরে সভা করতে এসে দলীয় কর্মীদের কাছে বেশ কয়েকটি টোটকা দিয়ে গেলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার উত্তরপাড়ার তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিকের সমর্থনে এখানে জনসভা করেন তিনি। সেখানে মমতা বলেন, ” ভোটের দিন এমন কাউকে এজেন্ট রাখবেন না যে ভয়ে পালিয়ে যাবে। তার থেকে কন্যাশ্রী মেয়েদের ডেকে নিন। ওরা লড়াই চালাতে পারবে।”

উল্লেখ্য নন্দীগ্রামের বেশ কয়েকটি বুথে তৃণমূল এজেন্ট দিতে পারেনি বলে অভিযোগ। সেই প্রসঙ্গে এদিন মমতা এমন কথা বলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি নাম না করে উত্তরপাড়ার বিদায়ী বিধায়ক প্রবীর ঘোষালকে নিশানা করেছেন তিনি। উল্লেখ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করে এবার এই কেন্দ্রেই প্রার্থী হয়েছেন প্রবীর। সেই প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ” এখানকার বিধায়ক চলে গেছে বাঁচা গেছে। তৃণমূলের টিকিটে আবার জিতলে সমস্যা হতো। তখন টাকা দিয়ে বিজেপি কিনে নিত গদ্দারকে।”

আরো পড়ুন : আইএসএফ প্রার্থীকে জুতো ঝাঁটা দেখিয়ে বিদায়ের চেষ্টা, অভিযোগ তৃণমূলের দিকে

এর পাশাপাশি নির্বাচনের দিন দলীয় কর্মীদের বিশেষ কয়েকটি দিকের কথা তুলে ধরে সতর্ক করে দিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, ” ভোটের দিন ভোরবেলা ইভিএম ভাল করে পরীক্ষা করবেন। ৩০টি করে বোতাম টিপে দেখে নেবেন মেশিন ঠিক আছে কিনা। বুথে যেন এজেন্ট থাকে। ভোটের পর ইভিএম একমাস পাহারা দিতে হবে। কেউ এলাকা ছেড়ে যাবেন না। বহিরাগতদের থেকে সাবধান।” এদিন মমতা বিজেপির বিরুদ্ধে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে সরব হয়েছেন।

তিনি বলেন, ” হুগলি আমার খুব প্রিয় জায়গা। কোন্নগরে বহুবার এসেছি। এখানকার মন্দির বাংলার ঐতিহ্য। এখানকার মানুষ আরও ভাল। তাই বিজেপিকে এখানে আনবেন না। ওরা সব কিছু বিক্রি করে দিচ্ছে। বিজেপি গ্যাস, পেট্রোল, ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। এর জবাব ভোটবাক্সে দিতে হবে”। উল্লেখ্য উত্তরপাড়া বিধানসভার পাশাপাশি হুগলি জেলায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তীব্র আকার নিয়েছে। সেই লক্ষ্যে সবাইকে একজোট হয়ে কাজ করার বার্তা দিয়েছেন মমতা।