মুম্বাই নগরীতে ভাগ্যের সন্ধানে পাড়ি দিচ্ছে ব্রক্ষ্মা জানে..

1 min read

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।।

বাংলায় ইতিমধ্যেই জাদু ছড়িয়েছেন ব্রক্ষ্মা জানেন গোপন কম্মটি। এক নারী পুরোহিত এবং তাঁর জীবনের কঠিন সংগ্রামকে হাসি-মজা-আনন্দ ছলে দেখিয়েছিলেন শিবপ্রসাদ রায় এবং নন্দিতা রায়। সিনেমার গল্প লিখেছিলেন জিনিয়া সেন। তবে হিন্দী সিনেমার মোড়কে এই কাহিনী লিখবেন আরিয়া ওয়েব সিরিজ খ্যাত অনু সিং চৌধুরি। তিনিই জানালেন, মুম্বাই নগরীতে পাড়ি দিতে চলেছে এই কাহিনী। হিন্দীতে অবশ্য কে মূল চরিত্র শবরী দেবীর ভূমিকায় থাকবেন, তা নিয়ে খোলসা করেননি তিনি।

মহিলা পুরোহিতও যে হয়, এবং সামাজিক আচারের পরিচালনা করতে তিনিও সমানভাবে দক্ষ – পর্দায় এই কাহিনীই তুলে ধরা হয়েছিল। বাংলা সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল নারী দিবসের প্রাক্কালে। সিনেমাতে শবরীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। স্বামী বিক্রমাদিত্যের চরিত্রে ছিলেন সোহম মুখোপাধ্যায়।বনেদি পরিবারের সুখী সংসারের আড়ালে শবরী দেবী মহিলা পুরোহিতের কাজ করতেন, যা সমাজের চোখে একপ্রকার প্রথা ভাঙা। নির্দেশক অরিত্র মুখোপাধ্যায় এই কাহিনীই দেখাতে চেয়েছিলেন দর্শকদের।

আরো পড়ুনঃ ধুতি পাঞ্জাবিতে ইউভানের পুজোর সাজের ছবি মিস করবেন না

৬ মার্চ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল। কিন্তু করোনার প্রকোপে প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ হয়ে যায়। সিনেমাটি দর্শকদের কেমন লাগল, বা অন্য কথায় প্রযোজকেরা কতটা লাভ করলেন, তা নিয়ে সন্দেহ ছিল। তাই সিনেমাটি এই পুজোতে ফের মুক্তি পায়। এবার সিনেমাটিকে সর্বভারতীয় কাহিনীর মোড়কে ফেলার কথা ভাবছেন।

প্রযোজকেরা হিন্দীতে রিমেকের ভাবনা রেখেছেন বলে জানা গিয়েছে। চিত্রনাট্যকার বিদ্যা বালন, তাপসী পান্নু মত অভিনেত্রীদের এই সিনেমার একটি অংশ করতে ইচ্ছুক। তবে পুরোটাই যে তিনি ঠিক করবেন তা নয়। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন প্রযোজক এবং নির্দেশকই। তাই এবার এটাই দেখার, ব্রক্ষ্মার হাত ধরে কতটা ভাগ্যের চাকা ঘোরে মুম্বাই নগরীতে প্রযোজকদের।

Categories