সময়ের স্রোতে হারিয়ে যাচ্ছে নীল খামের চিঠি, গুরুত্ব হারাচ্ছে ডাকঘর

1 min read

।। ফাইজা রাফা, বাংলাদেশ।।

হারিয়ে যেতে বসেছে কালি, কলম, মন এ তিনের সমন্বয়ের চিঠি। হারিয়ে যাচ্ছে হলুদ, নীল খামে প্রিয়জনকে কাগজে লেখার সেই আবেগ।ফুরিয়ে গেছে ডাকঘরের মাধ্যমে চিঠি পাঠানো কিংবা টেলিগ্রাম সেবার প্রয়োজনীয়তা।

একসময় ডাক বিভাগ ছিল যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম। চিঠি, পণ্য পার্সেল, টাকা পরিবহনে একমাত্র ভরসা ছিল ডাক বিভাগ।প্রতিদিন খামে পুড়ে চিঠি রাখতেন সাধারণ মানুষ। প্রতিদিন সেগুলো খুলে ডাকপিয়নরা বিভিন্ন ঠিকানায় পাঠাতেন।

কিন্তু সময়ের সাথে সব বদলে গেছে ৷প্রযুক্তির উন্নতির কারণে হাতে লেখা চিঠির কদর কমে গেছে। তাই এখন আর ডাক বক্সগুলো ব্যবহার হয়না। দু’একটি ছাড়া বেশির ভাগই ভাঙ্গা ও মরিচা পড়ে নষ্ট হওয়ার পথে। একসময় পোস্ট বক্সে প্রচুর চিঠি পরলেও বর্তমানে বক্সে একটি চিঠিও পড়ে না ৷

এক সময় মানুষের সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ছিলো ডাক যোগাযোগ ।
দিনে দিনে কমেছে ডাক বা চিঠি পত্র আদান প্রদান ৷ ডাক পিয়ন ও এখন তেমন চোখে পড়ে না ৷

বাংলাদেশ এখন অনেক এগিয়ে। অনেক উন্নত পরিসরে চলছে মানুষের সামাজিক যোগাযোগ ব্যাবস্থা। এখন মানুষ ডাকযোগে যোগযোগের মাধ্যম পরিহার করে মোবাইল , ইন্টারনেট, ফেসবুকিং, ই-মেইল, কিংবা কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেনসহ নিত্য প্রয়োজণীয় যোগাযোগ করে থাকেন।

আর এসবের ব্যাবহারও চলছে জোরালো গতিতে। তাই মানুষজন এখন ভুলে গেছেন সেই মানদাতা আমলের ডাকযোগে চিঠি পত্রের কথা।