Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

দুই বেহালায় বাম ভোটব্যাঙ্ককে ভাই-এর ভূমিকায় চান বিজেপির তারকা প্রার্থীরা

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

জয়ের লক্ষ্যে এবার সিপিএম-এর ভোট ব্যাঙ্ককে ভাইয়ের ভূমিকায় চান ভারতীয় জনতা পার্টির দুই তারকা প্রার্থী। বেহালা পূর্ব ও বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্র থেকে ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী হয়েছেন টলিউডের দুই প্রথমসারির নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও পায়েল সরকার। তাদের প্রতিপক্ষ যথাক্রমে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং সদ্য বিজেপি ত্যাগী কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়।

তবে, সাংগঠনিক ভাবে দক্ষিণ কলকাতার এই প্রান্তে বিজেপি অনেকটাই দুর্বল। আর তাই, তৃণমূলের এই গড়ে জয় ছিনিয়ে আনতে দুই বেহালার চিত্রনাট্যের দুই নায়িকা এবার সিপিএমের ভোটব্যাঙ্ককেই ‘ভাই’য়ের ভূমিকায় চাইছেন। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে দক্ষিণ কলকাতা লোকসভার অন্তর্গত এই দুই বেহালা কেন্দ্র থেকেই ভালো ব্যবধানে এগিয়েছিলেন সাংসদ মালা রায়।

বেহালা পূর্ব থেকে ১৫ হাজার ৮৫৮ ও বেহালা পশ্চিম থেকে ১৬ হাজার ১৬৫ ভোটে এগিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ মালা রায়। ভোট রাজনীতির কারবারিরা মনে করেন লোকসভা নির্বাচনে এই দুই বিধানসভা কেন্দ্রে সিপিএম ভালো ভোট পাওয়ার কারণেই তৃণমূল কংগ্রেসের জয় মসৃণ হয়েছিল। আর তাই এবার, ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়ে গেরুয়া শিবিরের চোখে পড়েছে এই এলাকার বাম ভোটবাক্সের দিকে।

লোকসভা নির্বাচনে পূর্ব ও পশ্চিম বেহালায় সিপিএম প্রার্থীরা পেয়েছিলেন যথাক্রমে ৩২ হাজার ৭৯২ ও ৩৯ হাজার ৮৩৬ ভোট। আর তাই রাজনীতির অঙ্ক বলে দিচ্ছে এই দুই কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীরা যদি বামফ্রন্টের এই ভোট নিজেদের দিকে টানতে পারেন তাহলেই জয় সম্ভব হবে গেরুয়া শিবিরের। তাই বলাই যায়, ভোটের ঘুঁটি সাজাতে বসে শ্রাবন্তী ও পায়েলকে নজর দিতেই হচ্ছে সিপিএমের ভোটবাক্সের দিকে।

জানা গিয়েছে, বেহালা পূর্বের ১২২, ১২৩, ১২৪, ১৪২, ১৪৩ ও ১৪৪ নম্বর ওয়ার্ডে এখনও রয়েছে সিপিএমের ভোট। আবার অন্যদিকে বেহালা পশ্চিমের ১২৭ ও ১২৮ নম্বর ওয়ার্ডে এখনও সিপিএমের কাউন্সিলরাই রয়েছেন এলাকার দায়িত্বে। পাশাপাশি ১২৭ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান সিপিএম কাউন্সিলর তথা কো-অর্ডিনেটর নীহার ভক্তই বেহালা পশ্চিমে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী হয়েছেন। তাই সেখানে দাঁড়িয়ে শ্রাবন্তীর কাছে সিপিএমের ভোট নিজের দিকে টানা যে বেশ কঠিন হবে, তা মেনে নিচ্ছেন বেহালা পশ্চিমের বিজেপি-রই নেতা-কর্মীরা।

সূত্রের খবর, সিপিএম-এর ভোট টানতে দুই চিত্রতারকা প্রার্থীকেই সিপিএম অধ্যুষিত এলাকায় বেশি করে প্রচারে আনা হচ্ছে। পাশাপাশি সাধারণ ভোটাররা যাতে প্রার্থীদের সঙ্গে বেশি করে মিশতে পারেন সে বিষয়ে জোর দেওয়া হচ্ছে, বলেও জানা যাচ্ছে। এখন দেখার গেরুয়া শিবিরের বামেদের ভোটব্যাঙ্ক নিজেদের দিকে টানার এই কৌশল কাজে দেয় কিনা।