শ্বাসকষ্ট নিয়ে আবারও হাসপাতালে অমিত শাহ

1 min read

।। প্রতীক রায়।।

করোনা থেকে সেরে ওঠার পর শ্বাসকষ্ট নিয়ে আবারও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপির সাবেক সভাপতি অমিত শাহ।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট ফর মেডিকেল সায়েন্সেসে (এইমস) তিনি ভর্তি হন। ভারতের নির্ভরযোগ্য সংবাদ সংস্থা আইএএনএসের বরাত দিয়ে এই খবর দিয়েছে ব্লুমবার্গ।

৩ আগস্ট করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার পর এ পর্যন্ত তিন বার হাসপাতালে ভর্তি হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই ঘনিষ্ট সহচর। তখন দুই সপ্তাহের কম সময় হাসপাতালে থেকে বাসায় ফেরেন তিনি। এরপর ক্লান্তি-অবসাদ ও অন্যান্য শারীরিক সমস্যা নিয়ে আবারও চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হয়েছিল মোদিকে।

পরে বাসায় ফিরলেও শারীরিক সমস্যা রয়ে যায় ৫৫ বছর বয়সী অমিতের। আবারও শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে শনিবার রাত ১১ টায় এইমসে ভর্তি করা হয় তাকে।

হাসাপাতাল সূত্র জানায়, করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে উঠলেও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন শাহ। যে কারণে চিকিৎসকদের পরামর্শে মধ্যরাতে তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে তাকে। তবে তিনি ভালো আছেন। আপাতত চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

এইমসের একটি সূত্র বলেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে অমিত শাহের হাসপাতালে ভর্তি থাকা সবচেয়ে ভালো। কারণ হাসপাতালে তার শারীরিক অবস্থার ওপরে সার্বক্ষণিক নজর রাখা সম্ভব হবে।

গত ২ আগস্ট টুইট করে নিজের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন অমিত শাহ। পরে করোনা চিকিৎসায় গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। গত ১৪ আগস্ট তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

এদিকে, কোভিড-১৯ পরবর্তী শারীরিক কিছু সমস্যার জন্য গত ১৮ আগস্ট গভীর রাতে ফের দিল্লির এইমসই হাসপাতালে ভর্তি হন অমিত শাহ। তার রক্তচাপ খুব বেড়ে গিয়েছিল। সঙ্গে ছিল শ্বাসকষ্ট।

চিকিৎসা নিয়ে গত ৩১ আগস্ট হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরেন অমিত শাহ। হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পরেও তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে।

ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী তিনি। গত ৩ দশক ধরে নরেন্দ্র মোদির ডান হাত হিসেবে পরিচিত তিনি।

পিসি/