Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিজেপি এবং তৃণমূলকে আটকাতে বিকল্প কংগ্রেস, মন্তব্য জাবেদ খানের

1 min read

।।শর্মিলা মিত্র ।।

সরগরম ভোটের বাজার। পাখীর চোখ ২০২১ বিধানসভা নির্বাচন। এরই মধ্যে তাপমাত্রার পারদ ওঠা নামা করলেও রাজনীতির পারদ যে ঊর্ধ্বমুখী তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। ভোটের ময়দানে এক ইন্চিও জমি ছাড়তে নারাজ শাসক-বিরোধী উভয় পক্ষই। আর এরই মধ্যে এবার, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাখীর চোখ করে মালদার কতুয়ালি ভবনে বৈঠকে বসেন কংগ্রেস বিধায়ক এবং জেলা নেতৃত্বরা। বুধবার দুপুরে কোতুয়ালি ভবনে কংগ্রেস নেতাদের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, এআইসিসির (AICC) সাধারণ সম্পাদক তথা কিষানগঞ্জের সাংসদ জাবেদ খান, কংগ্রেসের জেলা সভাপতি তথা দক্ষিণ মালদা সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী, বিধায়ক ঈশাখান চৌধুরী।

উপস্থিত ছিলেন ভূপেন্দ্রনাথ হালদার, আসিফ মেহবুব সহ অন্যান্য নেতা নেত্রীরাও। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা এবং মালদা জেলায় ভালো ফল করার লক্ষ্যে জেলা নেতৃত্বদের নিয়ে বৈঠকের আয়োজন বলে জানান, এআইসিসির (AICC) সাধারণ সম্পাদক জাবেদ খান (Javed Khan)। পাশাপাশি তার মন্তব্য বাংলায় আসতে পারবেনা বিজেপি। তিনি আরও জানান, ‘বিজেপি কোন factor নয় বাংলায়। ওটা একটা তামাশা। দু তিন মাসের মধ্যে জনগন ভোট দিয়ে তাদের বুঝিয়ে দেবে’। সিপিএম-কংগ্রেসের জোটের বিষয়ে তার মন্তব্য, ‘জেলা ভিত্তিক আলাদা আলাদা কমিটি সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। সবার সঙ্গে কথা বলে বাংলার মানুষের কথা ভেবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে’ বলেও মন্তব্য করেন জাবেদ খান (Javed Khan)। রাজ্যে বিজেপি সরকার গড়ছে কিনা ?

আরো পড়ুন : সারদার অ্যাম্বুলেন্স উদ্বোধন করেছিলেন পতাকা নাড়িয়ে, মমতাকে তোপ দিলীপের

এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘প্রশ্নই উঠছেনা।’ পাশাপাশি ‘ক্ষমা চেয়ে নিয়ে তিনি বলেন, গণমাধ্যমের উপর তাদের পুরো নিয়ন্ত্রণ রয়েছে তাই ছোট বিষয়কেও বড় করে দেখানো হয়।’ বলেও অভিযোগ করেন তিনি। রাজ্যে কংগ্রেসের ভূমিকা নিয়ে তার উত্তর, ‘কংগ্রেসই এখানে বিকল্প। বিজেপি এবং তৃণমূলকে আটকাতে লড়বে কংগ্রেস।’ তার মন্তব্য, ‘এখানে একদিকে এমন একটা সরকার আছে যারা মানুষের স্বার্থ দেখেনা। অন্যদিকে এমন একটি দল এখানে ঘর তৈরি করতে চাইছেন যারা শুধু মিথ্যের উপর দাঁড়িয়ে আছে।’ মালদার বিষয় তার মন্তব্য, ‘আমরা মনে করি আগেও এখানে আমাদের হাতে ছিল সবচেয়ে জয়ী আসন। সেখান থেকে চেষ্টা করতে হবে যাতে এখানকার সব আসনেই আমরা জিততে পারি।’ এইভাবে মালদাতে খানিকটা হলেও নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করলে কংগ্রেস তা বলাই যায়।