Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আব্বাস সিদ্দিকীর সভায় বাধার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

এবার মিনাখা অঞ্চলে আব্বাস সিদ্দিকীর সভা বাধার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আব্বাস সিদ্দিকীর অভিযোগ তিনি শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান এবং একটি অরাজনৈতিক সভা করতে যাচ্ছিলেন।
তার সভায় যোগ দিতে যাওয়া লোকজনের উপর তৃণমূলের লোকেরা আক্রমণ চালায় বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। এ ঘটনায় অনেকে আহত হয়েছেন। পাশাপাশি অনেকের বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাঠ চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন আব্বাস সিদ্দিকী। আব্বাসের অভিযোগ তৃণমূলের সমর্থকরা এই ভাঙচুর চালিয়েছে।

প্রশাসনের আধিকারিকেরা তৃণমূল সমর্থক দের সাহায্য করেছে। পার্টির লোকেদের হাতে আগনেয় অস্ত্র তুলে দিয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন আব্বাস সিদ্দিকী (Abbas Siddiqui )। তিনি বলেন এই ঘটনা প্রমাণ করে দিল বাংলায় গণতন্ত্র নেই। মানুষ তার স্বাধীনতা হারাতে চলেছে। প্রশাসন তৃণমূল পার্টির পক্ষপাতিত্ব করছে বলে দাবি জানান তিনি। পাশাপাশি তিনি বলেন এই ধরনের ঘটনা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। প্রসঙ্গত ডিসেম্বরেই নতুন দল ঘোষণা করার কথা ছিল আব্বাস সিদ্দিকীর। কিন্তু সেই তারিখ টা পিছিয়ে হয় ২১ শে জানুয়ারি নতুন দল ঘোষণা করতে চলেছেন আব্বাস সিদ্দিকী।

একুশের নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন দল ঘোষণা করতে চলেছেন তিনি। আব্বাস সিদ্দিকী জানিয়েছিলেন দলিত এবং পিছিয়ে পড়া মুসলিম সম্প্রদায় একত্রিত করে তিনি ফ্রন্ট তৈরি করবেন। বিধানসভা নির্বাচনে ২৯৪ টি আসনে প্রার্থী দেবে এই নতুন ফ্রন্ট জানিয়েছিলেন তিনি। আবার অন্যদিকে মিম প্রধান ও আব্বাস সিদ্দিকীর সঙ্গে নির্বাচনী লড়াই করবেন বলে জানিয়েছিলেন। আবার অন্যদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভোট নিজের দিকে টানা জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ কে সামনে রেখে এগোচ্ছে। কিন্তু আব্বাস সিদ্দিকীর দল প্রার্থী দিলে তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোট ভাগ হবে তা বলাই বাহুল্য। আর তার জন্যই কি ধরনের আক্রমণের ঘটনা শুরু হয়েছে উঠছে প্রশ্ন।