Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

রুদ্রনীলের মিছিলে হামলা, অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

||সুদীপা সরকার||

আজ খিদিরপুরের 77 নম্বর ওয়ার্ডে ভবানীপুরের বিজেপির প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ প্রচারে বেরন। রুদ্রনীলের অভিযোগ তাঁদের মিছিলের উপর হামলা চালানো হয়। হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে।রুদ্রনীল ঘোষ সরাসরি অভিযোগ তোলেন পুলিশের বিরুদ্ধেও। তিনি বলেন প্রচারে বাঁধা দিচ্ছে পুলিশ। তাঁর দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা পাথর ছোড়ে তাঁদের মিছিলের ওপর। ঘটনা ঘিরে এলাকায় উত্তেজনা

আজ খিদিরপুর 77 নম্বর ওয়ার্ডে প্রচারে বেরন রুদ্রনীল ঘোষ। তাঁদের মিছিলের ওপর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ তোলেন রুদ্রনীল। তিনি বলেন, তাদের মিছিলের ওপর হামলা চালানো হয়, পাথর ছোঁড়ে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপির মহিলা কর্মী সমর্থকেরা আহত হয়েছেন বলে জানান রুদ্রনীল। তিনি অভিযোগ তোলেন পুলিশ সবকিছু দেখেও চুপ রয়েছে। কাউকে আটক বা গ্রেফতার করেনি। উল্টে আমাদের চলে যেতে বলছে। এটা পশ্চিমবঙ্গ প্রশ্ন তোলেন রুদ্রনীল। তিনি বলেন সকাল থেকেই 4 জায়গায় বিজেপির প্রচারে আজ হামলা চালানো হয়।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে খিদিরপুর 77 নম্বর ওয়ার্ডে উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কোনো রকমে বিজেপির প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষকে গাড়িতে তোলে। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।এই বিষয়ে তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় পাল্টা জবাব দিয়েছেন।তিনি বলেছেন, রুদ্রনীল প্রচারের আলোয় আসার জন্য নাটক করছে। উনি বুঝে গেছেন ভবানীপুরে কিছু করা যাবে না। ওকে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই বলেও জানান তিনি।সব মিলিয়ে ষষ্ঠ দফার ভোটের আগে রুদ্রনীলের প্রচার ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে আজ খিদিরপুর।

এর আগেও ভবানীপুরের গোপালনগরে রুদ্রনীলের প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল।তখনও রুদ্রনীল অভিযোগ তুলেছিলেন প্রশাসনের কোনো সাহায্য পাচ্ছি না। আজও তিনি একই অভিযোগ তুললেন।