Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

লকেটের আপ্ত সহায়ককে চড় মারার অভিযোগে, বেশ কিছুক্ষণ অবরোধ জিটি রোড

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফায় আজ হুগলিতে কিছু বিধানসভা কেন্দ্রে প্রথম পর্যায়ের ভোট। সেইমত আজ সকালে হুগলির ৮ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এরপর বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হুগলির ৮টি বিধানসভা কেন্দ্রে যখন ভোটগ্রহণ চলছে তখন হুগলিরই আর এক কেন্দ্র চুঁচুড়ায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে চুঁচুড়ার ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের আপ্ত সহায়ক বিবেক মিশ্রকে রাস্তায় প্রকাশ্যে চড় মারার।


বিজেপির তরফে অভিযোগ, মঙ্গলবার বিবেক মিশ্র যখন নিজের বাইকে চড়ে চুঁচুড়ার রবীন্দ্রনগর বাজারে যান। সেই সময় সেখানে উপস্থিত পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে তাঁর বচসা হয়। সেই সময়ই এক পুলিশ কর্মী বিবেককে চড় মারেন বলে অভিযোগ। বিজেপি-র তরফে আরও অভিযোগ, বিনা প্ররোচনায় গায়ে হাত তোলা হয়েছে লকেট চট্টোপাধ্যায়ের আপ্ত সহায়ক বিবেক মিশ্রর। তৃণমূলের নির্দেশেই এই কাজ পুলিশ করেছে বলে অভিযোগ তাদের। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।

আরো পড়ুন : ‘আমি না থাকলে আপনাদের সব বন্ধ হয়ে যাবে’, আবেগকে শক্ত করে ধরলেন মমতা

অন্যদিকে, এই ঘটনার প্রতিবাদে অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে জি টি রোড অবরোধ করেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। জানা যায়, এই ঘটনার খবর পাওয়ার পরই নিজের অনুগামীদের নিয়ে রবীন্দ্রনগর বাজারে যান লকেট। সেখানে গিয়ে জি টি রোডের উপরে বসে পড়েন তিনি। লকেটের সঙ্গে এই বিক্ষোভে যোগ দেন চন্দননগরের বিজেপি প্রার্থী দীপাঞ্জন গুহও। ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের জানান, ‘আমার আপ্ত সহায়ককে চড় মারা হয়েছে। দোষীকে শাস্তি দিতে হবে।’

সূত্রের খবর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ানোর পাশাপাশি বিক্ষোভের ফলে যানজটের সৃষ্টি হয় জি টি রোডে। এরপর ঘটনাস্থলে আসেন চন্দননগর কমিশনারেটের সহকারী পুলিশ কমিশনার পলাশ ঢালি। তিনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করলে, তাঁকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। এই ঘটনায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এর বেশ কিছুক্ষণ পরে জিটি রোডে অবরোধ তুলে নেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। যদিও এই বিষয়ে পুলিশের তরফে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।