Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

U র মতো দেখতে এই রাজবাড়ি! কখনও সুযোগ হলে অবশ্যই যান একবার

1 min read

||এইচ এম আবির||

বাংলাদেশের জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী পশ্চিম কড়িয়া গ্রামে অবস্থিত Lakma Rajbari একটি ঐতিহাসিক প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। প্রায় ৩৫’শ বছর আগে লকমা চৌধুরীর পূর্বপুরুষ জৈনিক চৌধুরী হাদি মামুন এই জমিদার বাড়িটি নির্মাণ করেন।

সময়ের বিবর্তনে সেই জমিদার নেই, নেই তার রাজবাড়িও। কেবল আছে শুধু তার ঐতিহাসিক সেই স্মৃতিটুকু! ঐতিহাসিক নিদর্শন এই জমিদার বাড়িটি দেখতে দেশ-বিদেশের পর্যটক ও দর্শনার্থীরা।

এই রাজবাড়িটি দেখতে ইংরেজি বর্ণ ইউ আকৃতির। দ্বিতল বিশিষ্ট মূল ভবন ছাড়াও অপর দুটি দালানের একটি ঘোড়াশাল ও অপরটি হাতীশাল হিসেবে ব্যবহৃত হতো। বর্তমানে রাজবাড়িটির অবশিষ্ট প্রায় ১৫ বিঘা জমিতে বিভিন্ন শস্য, ফুলের বাগান ও ফলের চাষাবাদ করা হয়।

জনশ্রুতি আছে, ভবনের কিছু অংশ মাটির নিচে ডেবে গেছে। কথিত আছে, এই বংশের জমিদারগণ ছিলেন অত্যন্ত অত্যাচারী ও ভোগী প্রকৃতির। কোনও একদিন গায়েবি নির্দেশ আসে, “আজ সূর্যাস্তের মধ্যে এই বাড়ি ছেড়ে দিতে হবে অন্যথায় সবকিছু ধ্বংস হয়ে যাবে।” নির্দেশ অনুসারে সেদিন সবাই বাড়ি থেকে বেড়িয়ে আসে। আর কেউ ঢুকতে পারেনি! আজও এই ভবন ওইভাবে পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে।

যেভাবে যাবেনঃ
রাজধানী ঢাকা থেকে রেলযোগে দ্রুতযান এক্সপ্রেসে জয়পুরহাটে যেতে পারবেন। জয়পুরহাট জেলা শহর হতে স্থানীয় পরিবহন ব্যবস্থায় পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম কড়িয়া গ্রামে অবস্থিত Lakma Rajbari তে পৌঁছে যাবেন।

থাকা ও খাওয়াঃ
জয়পুরহাট শহরে থাকার জন্য বেশ কয়েকটি মানসম্মত আবাসিক হোটেল রয়েছে আর খাওয়ার জন্য দেশীয় হোটেল ছাড়াও কয়েকটি চাইনিজ হোটেলের সন্ধান পাবেন।