Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Tanuja Samarth: ৭৯-তেও এভারগ্রিন, জন্মদিনে রইলো তনুজার বলিউড থেকে টলিউড যাত্রা

1 min read

।।  প্রথম কলকাতা ।।

Tanuja Samarth 79th Birthday: আজ ২৩ সেপ্টেম্বর। আজ জন্মদিন বলিউডের অন্যতম কিংবদন্তি অভিনেত্রী তনুজার (Tanuja)। ৭৮ এর গন্ডি পেরিয়ে ৭৯-এ পা দিলেন অভিনেত্রী। ৭০ এর দশকের ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্প বা বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিনি।

১৯৪৩ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর এক মারাঠি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন ‘তনুজা সমর্থ’। বাবা কুমারসেন সমর্থ এবং মা শোভনা সমর্থের চার সন্তানের মধ্যে তিনি একজন। কুমারসেন সমর্থ ছিলেন একজন কবি ও চলচ্চিত্র পরিচালক। ‘শোভনা সমর্থ’ ১৯৩০ ও ১৯৪০ এর দশকে ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন। শৈশবকালেই পিতা-মাতার মধ্যে বিবাহ-বিচ্ছেদ ঘটে। বড় বোন নূতন ছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তাঁর হাত ধরেই প্রথম চলচ্চিত্রে প্রবেশ তনুজার।

চলচ্চিত্র জীবনযাত্রা
বড় বোন নুতনের সাথে হামারি বেটি (১৯৫০) ছবিতে ‘বেবি তনুজা’ নামের চরিত্রে শিশু শিল্পী হিসেবে অভিনয়ের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্র জীবনে আত্মপ্রকাশ। ১৯৬০ সালে মা ও বোনের পরিচালনায় তৈরি ‘ছাবিলি’ ছবির মধ্যে দিয়ে পূর্ণাঙ্গ নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে তাঁর। এরপর পূর্ণাঙ্গ নায়িকা হিসেবে তিনি কিদার শর্মা’র ১৯৬১ সালে ‘হামারি ইয়াদ আয়েগী’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে খ্যাতির শিখরে পৌঁছান।

তার প্রথমদিককার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র  ‘বাহারেন ফির ভি আয়েঙ্গী’ ছবির পরিচালক ছিলেন শহীদ লতিফ। এরপর ‘ওহ্‌ হাসকে মিলে হামসে’ গানের মাধ্যমে তিনি সকলের নজর কাড়েন। সহজাত ও স্বভাবশৈলী অভিনয় নৈপুণ্যের মাধ্যমে তিনি খুব শীঘ্রই প্রধান অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে তুলে ধরেন। ১৯৬৯ সালে ‘জিনে কি রাহে’ ছবিতে জীতেন্দ্রের সাথে অভিনয় করেন ও আশ্চর্য্যজনকভাবে ছবিটির ব্যবসা সফল হয়। ওই বছরই ‘পয়সা ইয়ে পেয়ার’ ছবির জন্য ফিল্ম ফেয়ারে সেরা সহ অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছিলেন।

বাংলা চলচ্চিত্রে তনুজার আত্মপ্রকাশ
এরপর ১৯৬০ এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে কলকাতার বাংলা চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন অভিনেত্রী। ১৯৬৩ সালে মুক্তি প্রাপ্ত দেয়া নেয়া ছবিতে বাংলা সিনেমার কিংবদন্তি উত্তম কুমারের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এছাড়াও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বিপরীতেও অভিনয় করতে দেখা গেছে তাঁকে। বাংলা চলচ্চিত্রে তাঁর অভিনীত উল্লেখ যোগ্য কিছু ছবি হল ১৯৬৭ সালে এন্টনি-ফিরিঙ্গী এবং ১৯৭০ সালে মুক্তি প্রাপ্ত রাজকুমারী।

তনুজার ব্যক্তিগত জীবন
বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করার সুবাদেই পরিচালক শমু মুখার্জি’র প্রেমে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। ১৯৭৩ সালে সেই প্রেম পরিণতি পায়। তাঁদের দুই সন্তান কাজল মুখার্জী এবং তানিশা মুখার্জী। পরবর্তীতে তাদের সম্পর্কে ভাটা পড়লেও কখনও বিবাহ-বিচ্ছেদ ঘটাননি। ১০ এপ্রিল, ২০০৮ সালে শমু মুখার্জি হৃদজনিত কারণে পরলোকগমন করেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories