Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Tala Bridge : ‘পুজোর আগে এটা উপহার’, আড়াই বছর পর টালা সেতুর উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

অবশেষে কলকাতাবাসীর জন্য স্বস্তির খবর। দীর্ঘ আড়াই বছরের অপেক্ষার অবসান হল ২০২২ সালের ২২ শে সেপ্টেম্বর বিকেল ৫:৪৯ নাগাদ। কারণ এদিন নবনির্মিত টালা সেতুর (Tala Bridge) উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এই সেতুকে তিনি কলকাতাবাসীর জন্য পুজোর উপহার হিসেবে তুলে দিলেন। এই সেতুটি খুলে যাওয়ার ফলে উত্তর কলকাতায় আসতে আর যানজটে ভুগতে হবে না এমনটাই মনে করা হচ্ছে । অত্যাধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে তৈরি হওয়া এই টালা সেতু এক ঝটকায় এবার সমাধান করবে উত্তর কলকাতা এবং উত্তর শহরতলির বাসিন্দাদের সমস্যা।

২০১৮ সালে টালা সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয় মাঝেরহাট সেতুটি ভেঙ্গে পড়ার পরে। ২০১৯ সালে সেই সেতু নতুন করে নির্মাণ করার সুপারিশ দেন বিশেষজ্ঞরা। এরপর ২০২০ সালে টালা সেতু ভাঙার কাজ শুরু হয় । নতুন করে এই সেতুটিকে নির্মাণ করার দায়িত্ব নেয় লার্সেন অ্যান্ড টুবরো লিমিটেড। অবশেষে ২০২২ সালে এসে ৪৬৮ কোটি টাকা খরচ করার পর নতুনভাবে শহরবাসী ৭৫০ মিটার লম্বা এই টালা সেতু উপহার পেলেন ঠিক পুজোর আগে।

উত্তর কলকাতা এবং উত্তর শহরতলির যাতায়াতের জন্য টালা সেতু অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । তাই এই সেতুটি যখন ভাঙার কাজ শুরু হয় তখন ব্যাপক সমস্যায় পড়তে হয় নিত্যযাত্রীদের। বরাহনগর কিংবা সিঁথির মোড় থেকে উত্তর কলকাতায় আসার জন্য তাদের দীর্ঘ পথ ঘুরে আসতে হতো। তবে আর সেই সমস্যায় ভুগতে হবে না তাদেরকে । যদিও সেতুটি উদ্বোধন করার পরেই ভারী যান চলাচল আগামী এক সপ্তাহ পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হয়েছে সেখানে । শুধুমাত্র এই এক সপ্তাহ ছোট গাড়িগুলি চলবে।

উল্লেখ্য , চার লেন বিশিষ্ট এই টালা সেতু অত্যাধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে তৈরি করা হয়েছে , এমনটাই জানিয়েছিলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) । যার কারণে এটি পূর্বের তুলনায় আরও অনেক গুণ মজবুত। এর ভার বহন ক্ষমতা পূর্বে দেড়শ মেট্রিক টন ছিল কিন্তু এখন সেটি বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩৮৫ মেট্রিক টন। অর্থাৎ সবমিলিয়ে পুজোর মুখে শহরবাসীর জন্য সত্যিই বড় উপহার এই টালা ব্রিজ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories