Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Bolpur Child Murder : ‘ হাতে করেই মেরেছি’, বোলপুর শিশু হত্যাকাণ্ডে স্বীকারোক্তি মূল অভিযুক্তের

।। প্রথম কলকাতা।।

পাঁচ বছরের এক ছোট্ট ফুটফুটে শিশুকে অপহরণ করে তারপর তাকে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়। তা্ঁর দেহ পলিথিনের মুড়ে তুলে রাখা হয় ঘরের ছাদে। এইরকমই একটি মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী বোলপুর । এই শিশু হত্যার ঘটনায় রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। কারণ অভিযোগ উঠে এসেছে শিশুটির প্রতিবেশীর বিরুদ্ধেই। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ গ্রেফতার করে রুবি বিবি নামে ওই মূল অভিযুক্তকে। তাঁর গ্রেফতারির পর এই শিশু হত্যার ঘটনা নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছে সে । এমনই একটি ভিডিও বর্তমানে এসেছে প্রকাশ্যে। যদিও এই ভিডিও সত্যতা যাচাই করেনি প্রথম কলকাতা।

রুবি বিবিকে পুলিশ যখন গ্রেফতার করে গাড়িতে নিয়ে যাচ্ছিল, সেই সময় এই ভিডিওটি করা হয়। অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসা করা হয়, কেন সে হত্যা করল শিবমকে? এই প্রশ্নের উত্তরে একেবারেই অবলীলাক্রমে রুবি বলে যায়, ‘সঞ্জীব আমাকে এনে দিয়েছিল’। পুলিশের তরফ থেকে ফের প্রশ্ন করা হয় কেন খুন করা হল? তাকে অপহরণের পর রাতে ছেড়ে দেওয়াও যেত। কিন্তু রুবি উত্তরে জানায়, রাতে ছেড়ে দেওয়ার পরিকল্পনাই হয়েছিল কিন্তু তার আগেই সে নিজের হাতে খুন করে একরত্তি শিশুটিকে।

বর্তমানে প্রশ্ন উঠে এসেছে কে এই সঞ্জীব ? কেনই বা সে শিবমকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিল রুবি বিবির কাছে? এই সম্পর্কে স্থানীয় সূত্রে পাওয়া প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, সঞ্জীব হল ওই এলাকার যুবক, যে শিবমের পরিবারের সেলুনেই কাজ করতো । কিছুদিন আগে থেকে তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে রুবি বিবির । এই বিষয়টি নিয়ে ঝামেলা ঝঞ্ঝাট সৃষ্টি হওয়ায় মাঝে জড়িয়ে পড়ে শিশুটির পরিবার। আর তাতেই বলি হয় ছোট্ট শিবম। গত রবিবার বাড়ি থেকে বিস্কুট কিনতে বেরিয়েছিল সে । কিন্তু আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। পুলিশ তল্লাশি চালানোর প্রায় ৫২ ঘণ্টা পর প্রতিবেশীর বাড়ির ছাদে উদ্ধার হয় তাঁর পচা গলা দেহ। এরপরই রীতিমতো অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে গ্রামের পরিস্থিতি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories