Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Indo-bangladesh press club: ‘সবার পুজো ভালো কাটুক’, ইলিশ-মিষ্টি সহযোগে অনুষ্ঠান ইন্দো-বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। আর পুজোর আগেই পুজোর আমেজ আনল ইন্দো-বাংলা প্রেস ক্লাব। যেখানে সাংবাদিক সদস্যদের নিয়ে আয়োজিত হল এক সুন্দর অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানটির নাম ‘বাংলার মিষ্টি আর বাংলাদেশের ইলিশ’। মূলত ক্লাবের সদস্যদের নিয়ে আজ শনিবার আয়োজিত হয়েছিল ঘরোয়া এই অনুষ্ঠানের। এই অনুষ্ঠান থেকে সবাইকে শারদীয়ার আগাম প্রীতি এবং শুভেচ্ছা জানানো হয় সবাইকে আর শুধু তাই নয় প্রত্যেক সদস্যর হাতে তুলে দেওয়া হয় বাংলাদেশের সুস্বাদু ইলিশ যার খ্যাতি গোটা বিশ্বজুড়ে এবং তার সাথে ছিল রসগোল্লা এবং আরও ২ রকম মিষ্টি। শারদীয়ার আগে এরকম একটি অনুষ্ঠান হওয়ায় বাংলাদেশ গণমাধ্যমের ভারতীয় প্রতিনিধিরা স্বাভাবিক ভাবেই ভীষণ খুশি।

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন একাধিক সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা। ছিলেন সাংবাদিক সুকান্ত চট্টোপাধ্যায় , দেবপ্রসাদ অধিকারী, মুকুল বসু, বিক্রম লাহা, দীপক মুখোপাধ্যায়, অমর সাহা, সুরজিৎ পুততুন্ড, এস আজিজ, কিংশুক চক্রবর্তী, দীপক দেবনাথ, সুব্রত আচার্য।অনুষ্ঠান থেকে ক্লাবের মুখপাত্র দীপক দেবনাথ বলেন ‘শারদীয়ার আমেজ আনতেই এই অনুষ্ঠান। সবার পুজো যাতে ভালো কাটে সেই কামনাই করি আমরা সবাই। সবাইকে প্রীতি এবং শুভেচ্ছা বিনিময়ের সঙ্গে তুলে দেওয়া হচ্ছে উপহার। কী সেই উপহার? বাংলাদেশের ইলিশ এবং বাংলার প্রসিদ্ধ মিষ্টি। রসগোল্লার সঙ্গে আরও ২রকমের মিষ্টি।’

আজকের এই অনুষ্ঠানে নিজেদের মতো করে একাধিক বিষয়ে মত বিনিময় করেন ক্লাবের সদস্যরা। কথায় কথায় উঠে আসে কিভাবে দুই বাংলার সুসম্পর্ক বজায় থাকবে। বাংলাদেশী সাংবাদিকরা যদি কলকাতায় সমস্যায় পড়ে তাহলে ইন্দো বাংলা প্রেসক্লাব কিভাবে তাদের পাশে থাকবে এবং সমস্যার সমাধান করবে সেই বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়। বাংলাদেশ গণমাধ্যমের কলকাতা প্রতিনিধি হিসাবে কর্মরত যেসমস্ত প্রতিনিধি যারা আজ আর নেই তাদের পরিবারের পাশে থাকা নিয়েও আলোচনা হয়।ঠিক কীভাবে পথ চলা শুরু করল ইন্দো-বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব? গত ১৪ মার্চ ইন্দো-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সূচনা হয় কলকাতায়।

যদিও আনুষ্ঠানিক ভাবে পথচলা শুরু ২৪ আগস্ট। সেইদিনই বাংলাদেশ গণমাধ্যমের কলকাতা প্রতিনিধিরা অন্তর্ভুক্ত হয় এই ক্লাবের। ইতিমধ্যেই আসাম, ত্রিপুরা এবং দিল্লি থেকেও এই প্রেসক্লাবের সদস্য হতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন সেখানকার সাংবাদিকরা। পাশাপাশি ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরাও এই ক্লাবকে নিয়ে নিজেদের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ভারত এবং বাংলাদেশের সাংবাদিকদের মধ্যে সমন্বয় রেখে খুব শীঘ্রই ওয়েবসাইট চালু করা হচ্ছে। যেখানে ক্লাবের কার্যকলাপ, তথ্য এবং কিভাবে সদস্যপদ সংগ্রহ করা যাবে, সে বিষয়ে বাংলা এবং ইংরেজী দুই ভাষাতেই সমস্ত বিবরণ দেওয়া থাকবে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories