Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তারকেশ্বরে শুভেন্দুর মিছিলে পাথর ছোড়া, কালো পতাকা দেখানো, অভিযোগের কাঠগড়ায় তৃণমূল

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বিজেপির নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতিতে হুগলির তারকেশ্বরে মিছিল করতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন শুভেন্দু অধিকারী। মিছিল শুরু করতেই শুভেন্দু অধিকারীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হল। কালো পতাকা দেখানো হল। এমনকি মিছিলে পাথর ছোড়ার অভিযোগ উঠেছে। সবকিছু নিয়ে তৈরি হয় ধুন্ধুমার পরিস্থিতি। বিজেপির পক্ষ থেকে এজন্য তৃণমূলকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। তবে তৃণমূলের বক্তব্য, বিজেপি বাংলাকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে। বিজেপি উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়রা রুখে দাঁড়িয়েছেন।

১৩ ই সেপ্টেম্বর নবান্ন অভিযান করতে চলেছে বিজেপি। নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতিতে আজ তারকেশ্বরে গিয়েছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন দলের একাধিক কর্মী-সমর্থক। কিন্তু মিছিল শুরু করতেই তারকেশ্বরের চাউলপট্টি এলাকায় শুভেন্দু অধিকারীর পথ আটকে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। কালো পতাকা হাতে নিয়ে, প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। তাদের অভিযোগ, তারা আবাস যোজনার ঘর পাচ্ছেন না। সারের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এরপর বিজেপি কর্মীদের লক্ষ্য করে ইট-পাথর ছোড়ার অভিযোগ উঠেছে। বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। তবে পুলিশ বাহিনী ও raf এর তৎপরতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

ঘটনায় বেশকিছু মানুষ আহত হয়েছেন। কয়েকজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। এই ঘটনা প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা জানান, “মানুষের বলার অধিকার, প্রচারের অধিকার কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে তৃণমূল। মিছিলে এরকম হামলা হতে পারে তা কি পুলিশ জানত না, যদি তেমনটা হয় তাহলে রাজ্যে যে পুলিশ প্রশাসন বলে কিছু নেই, তেমনটাই ধরে নিতে হয়। আর যদি পুলিশ জানত এমনটা হবে তাহলে ধরে নিতে হয় পুলিশ ও প্রশাসনের তরফে মিলিতভাবে এই হামলা হয়েছে।”

হুগলি জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সুরেশ সাউ জানান, “তৃণমূলের লোকেরাই শুভেন্দু মিছিলে কালো পতাকা দেখিয়েছে। তৃণমূল অস্তিত্ব সঙ্কটের মধ্যে পড়ে গিয়েছে। সেজন্য এই সমস্ত উলটো-পালটা কাজ করছে।” এর পাল্টা জবাবে তৃণমূল নেতা শান্তনু সেন জানান, “নবান্ন অভিযান ফ্লপ হবে জেনেই বাংলাকে অশান্ত করার চেষ্টা বিজেপি।” তৃণমূল বিধায়ক রমেন্দু সিংহ রায় জানান, “বিজেপির কিছু লোকজন মহিলাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে। পাথরের আঘাতে আটজন মহিলা গুরুতর আহত হয়েছেন। তাঁদের কারও মাথা ফেটেছে, কারও পায়ে লেগেছে। ন্যক্করজনক ঘটনা। শুভেন্দু অধিকারী নেতৃত্ব দিয়ে এই ঘটনা ঘটাচ্ছে। ওর দল এবং ও নিজে নোংরা জায়গায় চলে গিয়েছে।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories