Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বড় খবর: ‘দেবযানীর মায়ের আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত’, দাবি সিআইডির

।। প্রথম কলকাতা।।

রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থা সিআইডির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন সারদা কান্ডের অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের মা শর্বরী মুখোপাধ্যায়। তিনি অভিযোগ করেছেন, দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের উপরে মানসিক চাপ সৃষ্টি করে মিথ্যে বয়ান দেওয়ানোর চেষ্টা করেছে সিআইডি। সিবিআইকে চিঠি লিখে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। তবে, সিআইডির পক্ষ থেকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হল। সিআইডির দাবি, এই সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

সারদা কান্ডের অন্যতম অভিযুক্ত তথা সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের প্রাক্তন ব্যক্তিগত সচিব দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের মা শর্বরী মুখোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, গত মাসের শেষ দিকে দমদমের কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের কাছে গিয়েছিল সিআইডির একটি বিশেষ দল। তিনি অভিযোগ করেছেন, সুদীপ্ত সেনের কাছ থেকে শুভেন্দু অধিকারী ও সুজন চক্রবর্তী ৬ কোটি টাকা দিয়েছেন এ কথা বলার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে দেবযানি মুখোপাধ্যায়কে। এ বিষয় নিয়ে সিবিআইকে তিনি চিঠি দেন। এই চিঠি সামনে আসতেই শুরু হয় চাঞ্চল্য।

সিবিআইকে দেওয়া চিঠিতে শর্বরী মুখোপাধ্যায় লিখেছেন, “দেবযানী আমাকে জানিয়েছে, সিআইডি ওঁর উপর মারাত্মক চাপ তৈরি করছে। ২৩ আগস্ট জেলে গিয়ে আমার মেয়ের সঙ্গে দেখা করে চাপ তৈরি করেন এক সিআইডি আধিকারিক। দেবযানীর উপস্থিতিতে সুদীপ্ত সেন ৬ কোটি টাকা শুভেন্দু এবং ৬ কোটি টাকা সুজনকে দিয়েছেন, এমন কথা বলার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। এই বয়ান না দিলে ন’টি মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। আমার মেয়ে ভীত, সন্ত্রস্ত।”

এবার এর প্রেক্ষিতে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিল সিআইডি। সিআইডির পক্ষ থেকে জানানো হল, এটা সত্যি যে ২৩ শে আগস্ট সারদাকাণ্ডের তদন্ত করতে দমদম সেন্ট্রাল সংশোধনাগারে গিয়েছিলেন সিআইডির আধিকারিকেরা। রাজ্যের গোয়েন্দা দপ্তরের হাতে থাকা মামলার তদন্তে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন ছিল। মহিলা স্টাফ ও আইওর উপস্থিতিতে জেরা চলে। যা রেকর্ড করা হয়েছিল।

সিআইডির পক্ষ থেকে জানান হল, যে অভিযোগ এনেছেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের মা, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের অতীতে সই করা কয়েকটি চেক নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে। এই চেকগুলি কাদের নামে? কাদের জন্য ইস্যু করা হয়েছিল? তা জানতে প্রশ্ন করেছিল সিআইডি। কিন্তু সহযোগিতা করা হয়নি। হুমকি দেওয়া বা চাপ সৃষ্টি করার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে, জানানো হয়েছে সিআইডির পক্ষ থেকে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories