Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

দুর্ঘটনার সময় প্রাণ বাঁচাবে iPhone 14, Apple Watch! এই ফিচার জানলে হুঁশ উড়ে যাবে আপনার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

অফিস-কাছারি থেকে শুরু করে বাজার কিংবা ছুটির দিনে দীঘা-পুরী ভ্রমণ চেকলিস্টে কিছু ভুলেও গেলেও একটা জিনিস সর্বদা আপনার সাথে থাকে যা হল আপনার স্মার্টফোন। উঠতে বসতে এই ফোনে একটু ঢু না মারলে মন যেন তৃপ্ত হয় না। কিন্তু মানুষের বিপদে কখনো কি সেই ভাবে কাজে এসছে আপনার চিরসঙ্গী, বিশেষ করে কোনও আকস্মিক গাড়ি দুর্ঘটনায় (Car Accident)। এর উত্তর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে না।

আর এখানেই পার্থক্য গড়ে তুললো নতুন লঞ্চ হওয়া আইফোন ১৪ সিরিজ (iPhone 14) এবং অ্যাপেল ওয়াচ সিরিজ ৮ (Apple Watch Series 8)। এই দুই গ্যাজেটে রয়েছে এক বিশেষ কার ক্র্যাশ ডিটেকশন (Car Crash Detection) ফিচার। এই ফিচারের মাধ্যমে আপনি দুর্ঘটনার কবলে পড়লে তৎক্ষণাৎ আপনার ফোনে থাকে এমার্জেন্সি নম্বরে বার্তা পাঠিয়ে দেবে এটি। আইফোনের পাশাপাশি অ্যাপেল ওয়াচেও এই বৈশিষ্ট্যটি রয়েছে।

কীভাবে কাজ করে কার ক্র্যাশ ডিটেকশন ফিচার?

গাড়ি দুর্ঘটনার পর অ্যাপেল ওয়াচ পরিহিত ব্যক্তির তরফে ১০ সেকেন্ড পরও যদি কোনও প্রতিক্রিয়া না আসে ঠিক তখনই এটি ক্র্যাশ শনাক্ত করে ফোনে থাকা এমার্জেন্সি নম্বরে প্রয়োজনীয় বার্তা এবং লোকেশন পাঠিয়ে দেবে। এই ক্র্যাশ ডিটেকশন ফিচারে তিনটি স্তর রয়েছে বলে জানিয়েছে অ্যাপেল।

একটি ব্যারোমিটার কেবিনে থাকা চাপ শনাক্ত করে, দ্বিতীয়টি জিপিএস এটি গাড়ির গতি শনাক্ত করে এবং তৃতীয় মাইক্রফোন যেটি গাড়ি দুর্ঘটনার সময় যে আওয়াজ সৃষ্টি হয় তা শনাক্ত করে। এই তিন স্তরের সমন্বয়ে বিপদকালীন সময়ে ত্রাতার ভূমিকা পালন করবে অ্যাপেলের এই প্রোডাক্ট।

সংস্থা জানিয়েছে, অনুমোদিত ল্যাবে বাস্তবের দুনিয়ায় যেমন গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটে সেইরকম যাত্রীবাহির গাড়ির সাথে এই ফিচারটি পরীক্ষা করা হয়েছে। পাশাপাশি অ্যাপেলের দাবি, তাদের এই স্মার্টওয়াচে একটি নতুন তিন-অক্ষের জাইরোস্কোপ এবং হাই জি-ফোর্স অ্যাক্সিলোমিটার রয়েছে যা ২৫৬ জি পর্যন্ত চাপ বা ফোর্স শনাক্ত করতে পারবে।

Categories