Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ইন্ডিয়া গেটে সুভাষচন্দ্র বসুর গ্রানাইট মূর্তি উদ্বোধনে মোদী, সরকারের সিদ্ধান্তে খুশি নেতাজি কন্যা

।। প্রথম কলকাতা।।

বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়া গেটে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর মূর্তি উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর তাতে আনন্দ প্রকাশ করেছেন নেতাজির কন্যা। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে আনন্দের সহিত অনিতা বোস জানিয়েছেন, অত্যন্ত সন্তুষ্ট যে তাঁর বাবার মূর্তিটি ঐতিহাসিকভাবে প্রাসঙ্গিক স্থানে স্থাপন করা হবে।

প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, “আমি সম্মানিত বোধ করছি যে সরকার আমার বাবার মূর্তিটি এমন একটি স্থানে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমার বাবাকে ভারতের সাধারণ মানুষ এবং কিছু সরকার বিভিন্নভাবে সম্মানিত করেছে। এখনও গ্রামের মানুষ নেতাজিকে স্মরণ করে। খুবই মর্মস্পর্শী বিষয়টি”। এদিকে নেতাজির মূর্তি উন্মোচনে মোদি সরকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন মেজর জেনারেল গগন দীপ বক্সি।

তাঁর কথায়, ‘এটি একটি ঐতিহাসিক প্রক্রিয়া। ভারতের স্বাধীনতায় নেতাজি এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর অবদানকে মনে রাখার জন্য এটি একটি বড় পদক্ষেপ’। নেতাজির মূর্তিটি মূলত সেই জায়গায় স্থাপন করা হচ্ছে যেখানে চলতি বছরের শুরুতে পরাক্রম দিবসে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামীর একটি হলোগ্রাম মূর্তি উন্মোচন করা হয়েছিল। এই মূর্তিটি আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজির অপরিসীম প্রদানের জন্য একটি উপযুক্ত শ্রদ্ধা এবং তাঁর প্রতি দেশের ঋণের প্রতীক হবে। ২৮ ফুট লম্বা মূর্তিটি একটি মনোলিথিক গ্রানাইট পাথর থেকে খোদাই করা হয়েছে এবং এর ওজন ৬৫ মেট্রিক টন। শ্রী অরুণ যোগীরাজ এই মূর্তি তৈরিতে প্রধান ভূমিকা পালন করেছেন।

অন্যদিকে দিল্লির রাজপথের নাম বদলের প্রস্তাব পাশ হয়ে গিয়েছে। সেটি এবার থেকে পরিচিত হবে ‘কর্তব্য পথ’ নামে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, রাজপথের নাম ‘কর্তব্য পথে’ পরিবর্তনের কারণ ঔপনিবেশিক শাসনের প্রতীক মুছে ফেলা। কিন্তু যদিও শুধুমাত্র ঔপনিবেশিক শাসনের ছবি বহন করে না এই ‘রাজপথ’। সেইসঙ্গে স্বাধীনতা প্রাপ্তি সহ বহু ইতিহাসের সাক্ষী সে। ইংরেজ আমলে এই রাস্তার নাম ছিল ‘কিংসওয়ে’। স্বাধীনতার পর এর নাম হয় ‘রাজপথ’। রায়সিনা হিল থেকে বিজয় চক হয়ে ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত এটি। এদিকে আজ বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়া গেটে নেতাজির গ্রানাইট মূর্তির আনুষ্ঠানিক উন্মোচন করবেন মোদী।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories