Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাজেয়াপ্ত করা গাড়িতেই মিলতে পারে তথ্য, বাগুইআটি থানায় হাজির CID

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বাগুইহাটির জোড়া খুনের কাণ্ডে বর্তমানে তদন্তভার দেওয়া হয়েছে সিআইডির হাতে । দুই কিশোরকে প্রথমে অপহরণ এবং তাদেরকে নৃশংসভাবে হত্যা করার পেছনে মোটিভ কী ছিল তা ভাবাচ্ছে সকলকেই। শুধুমাত্র কি ৫০ হাজার টাকার জন্য এই খুন? বর্তমানে এই নিয়ে উঠছে একাধিক প্রশ্ন । বৃহস্পতিবার বাগুইআটি থানা এসে উপস্থিত হয় ৪ সদস্যের একটি সিআইডি টিম । তাঁরা বাজেয়াপ্ত হওয়া গাড়িটিকে খতিয়ে দেখবেন বলে জানা গিয়েছে । একইসঙ্গে পরীক্ষা করা হবে বলেও মিলল সূত্রের খবর।

বছর ১৭ এর দুই কিশোর অতনু এবং অভিষেককে প্রথমে অপহরণ করা হয় এবং তারপর বাসন্তী হাইওয়ের উপরে হত্যা করা হয় তাদেরকে । এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত হিসেবে নাম উঠে এসেছে সত্যেন্দ্র চৌধুরীর। সে আপাতত গা ঢাকা দিয়েছে। তবে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিজিৎ সহ আরও তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে অভিজিতের কাছ থেকে জানতে পারা গিয়েছিল যে, ওই গাড়িটির মধ্যেই শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছিল দু’জনকে । যদিও সত্যেন্দ্রর আসল টার্গেট ছিল অতনু । কিন্তু ঘটনার দিন তাঁর সঙ্গে অভিষেক থাকায় তাকেও হত্যা করতে হয়।

ঘটনার সূত্রপাত, ২২ শে অগাস্ট। এদিন ২ কিশোর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যায় তারপর বাগুইআটি থানায় অভিযোগ দায়ের করে পরিবার । কিন্তু পুলিশের সেক্ষেত্রে কোনরকম তৎপরতা ছিল না । চলতি মাসের ৬ তারিখে ওই দুই কিশোরের মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পর পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ পরিবারসহ স্থানীয়রা। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ক্লোজ করা হয় বাগুইআটি থানার আইসিকে । আর তারপর তদন্তভার দেওয়া হয় সিআইডির হাতে। সিআইডি আধিকারিকরা ইতিমধ্যেই সকাল দশটা নাগাদ এই হত্যাকাণ্ডের তথ্য সংগ্রহ করতে এসে উপস্থিত হয়েছেন বাগুইআটি থানায় । এছাড়াও পুলিশ যে গাড়িটি বাজেয়াপ্ত করেছিল সেই গাড়িটির পরীক্ষা-নিরীক্ষা আজ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories