Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভারতের রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তা রক্ষী এখন ভাইরাল, ক্রাশ খাচ্ছেন বহু মহিলা! ব্যাপারটা কী?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

মেজর গৌরব চৌধুরী, এই নামটি শুনলেই বহু মেয়ে ফিদা। ইনি সিনেমার নায়ক নন। এই ব্যক্তি হলেন আমাদের দেশের নায়ক। নেট জগতে বেশ কয়েকদিন ধরেই এই নামটি আলোচনায় রয়েছে। কোথাও বা তাঁর লুক নিয়ে আলোচনা চলছে, আবার কেউ বা তাঁর ব্যক্তিত্বের প্রশংসা করা হচ্ছে। প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে মেজর গৌরব চৌধুরীর ছবি এবং নানান ভিডিও। আর কেনই বা হবে না ? তিনি যে গুরু দায়িত্বে রয়েছেন তা যে কোনো সাধারণ মানুষের পক্ষে করা সম্ভব নয়। মেজর গৌরব চৌধুরী বর্তমানে ভারতের রাষ্ট্রপতির স্টাফ এডিসি হিসেবে কর্মরত। তিনি তাঁর ব্যক্তিত্বের কারণেই ইন্টারনেটে রীতিমত ঝড় তুলেছেন। বহু মানুষের তাঁর লুক এবং ড্রেসিং সেন্স বেশ পছন্দের। মহিলাদের মধ্যেও তাঁর ভালো ফ্যান ফলোয়িং রয়েছে। ইনস্টাগ্রাম এবং ইউটিউবে তাঁর নামে তৈরি হয়েছে বেশ অনেকগুলি চ্যানেল ।

তবে মেজর গৌরব চৌধুরীর ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে খুব একটা তথ্য পাবেন না। আসলে নিরাপত্তার প্রেক্ষিতে ভারতীয় সেনাবাহিনী কমান্ডোদের সাথে সম্পর্কিত কোন ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ করে না। মেজর গৌরব চৌধুরী প্যারা স্পেশাল ফোর্সের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। এটি ভারতীয় সেনাবাহিনীর সবচেয়ে সজ্জিত কমান্ডো ইউনিট। তিনি ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমি এবং ইন্ডিয়ান মিলিটারি অ্যাকাডেমি থেকে পড়াশোনা করেছেন। মেজর গৌরব চৌধুরী প্যারাসুট রেজিমেন্টের দশম ব্যাটেলিয়ানের দায়িত্ব পালন করেছেন। মেজর গৌরব চৌধুরী বয়স এবং জন্ম তারিখ সম্পর্কে সমস্ত বিবরণ নির্দিষ্টভাবে কোথাও দেওয়া নেই, তবে শোনা যায় তাঁর বয়স ২৯ বছর।

মেজর গৌরব চৌধুরী একজন অত্যন্ত নিবেদিতপ্রাণ মেজর এবং একজন ভারতীয় সেনা কর্মকর্তা। তাঁর আকর্ষণীয় ফিটনেস এবং আশ্চর্যজনক ব্যক্তিত্বের কারণে ইন্টারনেটে বহু ভক্তরা তাঁর সম্পর্কে জানতে অনুসন্ধান করে থাকেন। শোনা যায় তিনি নাকি শৈশব থেকেই ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে চেয়েছিলেন। তার জন্য করেছেন অনেক কঠোর পরিশ্রম। ভারতীয় সেনাবাহিনীতে বেশ কয়েক বছর কাজ করার পরে তিনি এখন রাষ্ট্রপতির প্রশাসনে এইড-ডি-ক্যাম্প( ADC) হিসেবে নিযুক্ত রয়েছেন। তিনি ভারতের হয়ে একাধিক গোপন মিশনে অংশ নিয়েছেন এবং সাফল্য পেয়েছেন। যার জন্য তাঁর ঝুলিতে রয়েছে প্রচুর সম্মান। স্পেশাল ফোর্স সম্মান, ইউ এস প্যারাসুট ব্যাজ, প্যারাসুট রেজিমেন্ট, মেরুন বেরেট, বলিদান সহ অনেক পুরস্কার এবং ব্যাজ অর্জন করেছেন। জানা যায় ২০১৯ সালে তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসেন, যদিও তাঁর স্ত্রী সম্পর্কে কোন তথ্য প্রকাশ্যে আসেনি।

আসলে ভারতের রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তার দায়িত্বে যিনি থাকেন তাঁদের একটু ব্যতিক্রমী মানুষ হতে হয়। তাঁদের চোখ এড়িয়ে একটা পিঁপড়ে পর্যন্ত গলতে পারে না। এই পদের জন্য তাঁদের বিভিন্নভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এই পদে তারাই যোগ্য যারা দ্রুত সিদ্ধান্ত এবং নিখুঁত লক্ষ্যভেদ করতে পারেন। এছাড়াও এই পদে নিয়োগের আগে প্রার্থীদের পরিবারের কয়েক প্রজন্মের ব্যাকগ্রাউন্ড যাচাই করা হয়। যদি সেক্ষেত্রে কোন আইনি সমস্যা বা অপরাধমূলক কথা উঠে আসে তাহলে তাকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করা হয় না। মেজর গৌরব চৌধুরী সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বেশ দূরেই থাকেন। শোনা যায় কিছুদিন আগেই নাকি তিনি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট সরিয়ে ফেলেছিলেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories