Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আশা রাখি, মলয়বাবু আর কিছুদিনের মধ্যেই উপযুক্ত জায়গায় যাবেন’, কী ইঙ্গিত করছেন সুকান্ত?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

গণমাধ্যমের বক্তব্য রাখলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। একাধিক বিষয় নিয়ে বক্তব্য রাখলেন তিনি। যেখানে রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের বাড়িতে সিবিআই তল্লাশি, বাগুইআটিতে জোড়া অপহরণ ও খুনের ঘটনা সহ একাধিক প্রসঙ্গ উঠে এল তাঁর বক্তব্যে।বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার জানান, “রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের নাম কয়লা কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছে। আসানসোল একটা বড় কয়লা বেল্ট। সেখান থেকে অবৈধভাবে পয়লা পাচার চলতো, আমরা পশ্চিমবঙ্গবাসী হিসেবে তা অস্বীকার করতে পারি না। তার তদন্ত চলছে।

আশা করি এই তদন্তকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ নথি, তথ্য-প্রমান তল্লাশির ফলে পাওয়া যাবে। এবং মলয় ঘটক বাবু আর কিছুদিনের মধ্যেই তাঁর উপযুক্ত জায়গায় যাবেন। পার্থবাবুর সঙ্গে দেখা হবে, এটাই আশা রাখি।”আবার, রাজ্যের একের পর এক নেতাকে আটক করছে সিবিআই, ইডি। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে বড়সড় পরিবর্তন হতে পারে, এই ধরনের কথা শোনা যাচ্ছে, এ প্রসঙ্গে সুকান্ত মজুমদার জানান, “আপনারা যেরকম ভাবছেন, আমরাও সেরকম ভাবছি। একটার পর একটা মন্ত্রী যদি এভাবে গ্রেপ্তার হতে থাকেন। এখন আইনমন্ত্রীর অপেক্ষা। আমরা অপেক্ষা করছি, কবে তিনি ভেতরে যাবেন? মন্ত্রীসভাটাই তো জেলের ভেতরে থাকবে। জেলের ভেতরে যদি মন্ত্রিসভা থাকে। তাহলে স্বাভাবিকভাবেই তো সরকার থাকবে না।”

অন্যদিকে, বাগুইআটিতে অপহরণ ও জোড়া খুনের ঘটনায় পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ উঠেছে মৃতদের পরিবারের পক্ষ থেকে। এ প্রসঙ্গে তিনি জানান, “আমি পরিবারের সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় সেখানকার কাউন্সিলর, ভাড়া করা গুন্ডা-বাহিনী এবং নিজেদের লোককে নিয়ে এসে আমাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। সেখানে পরিবার চাইছিল কথা বলার জন্য। এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। পরিবার তৃণমূলকে ভোট দেয়। পুলিশের কাছে গেছে। পুলিশ মিডিয়াকে জানাতে মানা করেছে বলে, মিডিয়াতে জানান নি। বারবার চেষ্টা করেছেন পুলিশের মাধ্যমে ছেলেদের উদ্ধার করতে। দুটো তরতাজা প্রাণকে ১৬ বছর ১৭ বছর বয়সে হারাতে হল।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories