Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Redmi 11 Prime 5G: একইদিনে একই সিরিজের ৫জি ও ৪জি স্মার্টফোন লঞ্চ করল রেডমি, দাম ১২ হাজারের ঘরে

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

মঙ্গলবার ভারতে লঞ্চ হল রেডমি ১১ প্রাইম ফাইভ জি (Redmi 11 Prime 5G) এবং রেডমি ১১ প্রাইম ফোর জি (Redmi 11 Prime 4G) স্মার্টফোন। একইদিনে একই সিরিজের ৫জি ও ৪জি ভার্সন লঞ্চ করে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করল এই সংস্থা। ৫জি ভার্সনে রেডমি দিয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর সহ ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যেখানে ৪জি ভার্সনে রয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ।

Redmi 11 Prime 5G এবং Redmi 11 Prime 4G এর দাম ও প্রাপ্যতা

৫জি মডেলে দুটি ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে – ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ, যার দাম ১৩,৯৯৯ টাকা এবং ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ যার দাম ১৫,৯৯৯ টাকা। এটি মেডো গ্রিন, ক্রোম সিলভার এবং থান্ডার ব্ল্যাক রঙে উপলব্ধ। এটির সেল শুরু হবে আগামী ৯ তারিখ থেকে Amazon, Mi.com এবং অনুমোদিত অফলাইন স্টোর গুলিতে।

অন্যদিকে ৪ জি মডেলের ক্ষেত্রেও রয়েছে দুটি ভ্যারিয়েন্ট – ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এটির দাম ১২,৯৯৯ টাকা এবং ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ, যার দাম ১৪,৯৯৯ টাকা।

Redmi 11 Prime 5G এর স্পেসিফিকেশন

৬.৫৮ ইঞ্চি ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লে সম্পন্ন এই স্মার্টফোনে রয়েছে কর্নিং গোরিলা গ্লাসসের সুরক্ষা। প্রসেসর রয়েছে অক্টা-কোর মিডিয়াটেক ডেমেনশন ৭০০ (octa-core MediaTek Dimensity 700) যা ৬ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম সাপোর্ট করে। এটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১২।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দৃশ্যমান। যার মধ্যে একটি ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল পোট্রেট সেন্সর। সামনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

এটির যে ইন্টার্নাল স্টোরেজ রয়েছে ১২৮ জিবি তা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ৫১২ জিবি পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা যাবে। এই স্মার্টফোনটির ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৫,০০০ mAh এবং ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। কানেক্টিভিটির ক্ষেত্রে ৫জি ছাড়াও ৪জি, ব্লুটুথ ৫.১, ওয়াই-ফাই ইউএসবি টাইপ-সি ইত্যাদি বিকল্প রয়েছে।

Redmi 11 Prime 4G এর স্পেসিফিকেশন

৫জি মডেলের মতো ৪জি মডেলও ফিচার্স প্রায় এক। আলাদা রয়েছে কেবল প্রসেসর এবং ক্যামেরায়। এই ৪জি স্মার্টফোনে প্রসেসর রয়েছে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি হিলিও জি৯৯ (MediaTek Dimensity Helio G99) যা সর্বোচ্চ ৬ জিবি পর্যন্ত
LPDDR4 র‍্যাম সাপোর্ট করে। এটিরও ইন্টার্নাল স্টোরেজ ১২৮ জিবি এবং মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

এটির ক্যামেরা স্পেকসের যদি কথা বলি, তাহলে এতে রয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। এর মধ্যে একটি ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, একটি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল পোট্রেট সেন্সর। সামনে সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য উপস্থিত ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি স্ন্যাপার।

এই স্মার্টফোনেও রয়েছে ৫,০০০mAh ব্যাটারি ক্যাপাসিটি এবং ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ও ৫ ওয়াট রিভার্স চার্জিংয়ের সুবিধা। এই স্মার্টফোনটির সামগ্রিক ওজন ২০১ গ্রাম।

Categories