Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বোলপুরের রাইস মিলে হানা CBI-এর, দরজার তালা খোলা নিয়ে শুরু টালবাহানা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

গরু পাচার কাণ্ডে বর্তমানে তৎপর ভূমিকা গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এই পাচার কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে । তাঁর একাধিক সম্পত্তির হদিশ পেয়েছেন সিবিআই আধিকারিকরা । এরই মধ্যে আরও একটি রাইস মিলের নাম উঠে এসেছে। বর্তমানে বোলপুরের ওই রাইস মিলটি রয়েছে সিবিআই এর নজরে । যার কারণে শুক্রবার সিবিআই গিয়ে উপস্থিত হয় বোলপুরের ভোলে ব্যোম রাইস মিলে। তবে সেখানে গিয়ে বাধার সম্মুখীন হতে হয় তাদেরকে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, সিবিআই আধিকারিকরা রাইস মিলের কাছে এসে পৌঁছলে নিরাপত্তা রক্ষীরা তাদেরকে ঢুকতে বাধা দেন। রাইস মিলের ভেতরে থাকা কর্মীদেরকে বহুবার ডাকাডাকি করা হয় কিন্তু কোনরকম সাড়া শব্দ মেলেনি বলেই জানা গিয়েছে। দীর্ঘক্ষণ তালা খোলা নিয়ে টালবাহানা চলতে থাকার পর অবশেষে রাইস মিলের ভেতরে প্রবেশ করতে সক্ষম হন সিবিআই আধিকারিকরা। এরপরই ওই রাইস মিলের ভেতরে থাকা বিভিন্ন নথিপত্র খতিয়ে দেখা শুরু করেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

আরো পড়ুন : Howrah: আর্থিক তছরূপের অভিযোগ প্রধান শিক্ষক সহ সভাপতির বিরুদ্ধে, উত্তেজনা স্কুল চত্বরে

সূত্র মারফত খবর মিলেছে, ২০১১ সালের আগে এই রাইস মিলের মালিকানা ছিল অন্য কারও হাতে। এরপর অনুব্রত মণ্ডল রাইস মিলটি কিনে নেন। এই মিলের অংশীদার হলেন তাঁর প্রয়াত স্ত্রী এবং মেয়ে । এদিন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা প্রায় ৪০ মিনিট পর মিলের ভেতরে প্রবেশ করেন। যদিও তাদেরকে জানানো হয় চাবি না থাকার জন্যেই ঢুকতে দেওয়া যায়নি । এরপর সিবিআই আধিকারিকদের তল্লাশি অভিযান শুরু হলে দেখা যায় মিলের ভেতরে একটি শেডের মধ্যে একাধিক বিলাসবহুল গাড়ি দাঁড় করানো রয়েছে। গাড়িগুলির মালিক কে? যদিও সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়নি তবে সেগুলিতে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যাজ লাগানো রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories