Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শীতল স্নায়ুযুদ্ধের মাঝে হারিয়ে যাচ্ছে মানবিকতা! রইল বিশ্ব মানবতা দিবসের গুরুত্ব

।। প্রথম কলকাতা ।।

একে অপরের প্রতি হিংসা পরায়ণ মনোভাব, সামান্য কারণে দাঙ্গা বেঁধে যাওয়া আর নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত মানুষের মাঝে ভূলুণ্ঠিত মানবতাবাদ। কিন্তু স্পষ্টভাবে বলতে গেলে এই মানবতাবাদ ছাড়া পৃথিবী অচল। মানুষ যদি একে অপরের হাত ধরে বাঁচতে ভুলে যায় তাহলে সেই জীবনের প্রকৃত কোন অর্থই থাকবে না। মানবতাবোধ চাক্ষুষ দেখা যায় না কিন্তু উপলব্ধি করা যায়। বর্তমানে পৃথিবীর শক্তিশালী রাষ্ট্রগুলির মধ্যে যে শীতল স্নায়ুযুদ্ধ চলছে সেখানে আদৌ কি মানবতাবোধ রয়েছে ? রয়েছে শুধু ক্ষমতা প্রতিষ্ঠা লাভের প্রতিযোগিতা। দৈনন্দিন জীবনের ব্যস্ততার ফাঁকে কোন অসহায় ব্যক্তিকে সাহায্য করার সময় অনেকেরই থাকে না। রাষ্ট্রে রাষ্ট্রে যুদ্ধ বেঁধেছে আর তার ভুক্তভোগী হচ্ছে অগণিত সাধারণ মানুষ। এমনকি এই সেই তালিকা থেকে ছোট ছোট দুধের শিশুরাও বাদ যাচ্ছে না।

সমাজের কিছু কিছু মানুষ আছেন যাঁরা একটু সহযোগিতা পেলেই হয়ত জীবনের মূল স্রোতে ফিরতে পারবে। কিন্তু বর্তমান দিনে সাহায্যকারী মানুষের বড়ই অভাব। সারাবিশ্বে অজস্র শিশু আছে যারা খিদে পেটেই ক্লান্ত হয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। অথচ প্রতিদিন বহু ব্যক্তির খাবার উদ্বৃত্ত থেকে যায় এবং নষ্ট হয়ে জমা পড়ে ডাস্টবিনে। মানুষের মধ্যে মানবতাবোধকে জাগিয়ে রাখার জন্যই ২০০৯ সাল থেকে ১৯শে আগস্ট বিশ্ব মানবতা দিবস পালিত হয়ে আসছে।

বিশ্ব মানবতা দিবসের সূচনা
সেরগিও ভিয়েরা দ মেলো নামক ব্রাজিলের এক ব্যক্তি চৌত্রিশ বছরেরও বেশি যুক্ত ছিলেন নানান মানবিক এবং রাজনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে। ২০০৩ সালে ইরাকের অবস্থা যুদ্ধবিধ্বস্ত। তাই তিনি এই পরিস্থিতিতে হাত গুটিয়ে বসে থাকতে পারেননি। রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফ থেকে একুশ জন সহকর্মী নিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন ইরাকের বাগদাদে। সেখানে ১৯ শে আগস্ট জাতিসংঘের কার্যালয় বোমা বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় সেরগিও ভিয়েরা দ মেলো সহ তাঁর সহকর্মীদের।

বিশ্ব মানবতা দিবস পালনের উদ্দেশ্য
ব্রাজিলে এই মানবাধিকার কর্মী ও তার সহকর্মীদের শ্রদ্ধার উদ্দেশ্যে প্রতিবছর পালিত হয়ে আসছে বিশ্ব মানবতা দিবস। যারা সর্বহারা মানুষের পাশে নিঃস্বার্থভাবে দাঁড়িয়েছিলেন তারাই শিকার হলেন হিংসার। এক্ষেত্রে মানবতাবোধের অবদমন ঘটল। মানবতা মানেই ব্যক্তির শুভ চিন্তা। পৃথিবীর ইতিহাস থেকে সম্পূর্ণরূপে মানবতাবোধ বিলুপ্ত হলেই রাজনৈতিক অর্থনৈতিক থেকে সামাজিক কাঠামো সম্পূর্ণরূপে ভেঙে পড়বে। বিশ্বে মানবতাবোধের জাগরণের জন্য প্রতিবছর ১৯ শে আগস্ট সেরগিও ভিয়েরা দ মেলো ফাউন্ডেশনের উদ্যোগের পাশাপাশি ফ্রান্স, জাপান , সুইজারল্যান্ড , ব্রাজিল প্রভৃতি দেশগুলিতে অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে পালিত হয় বিশ্ব মানবতা দিবস।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories