Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তেল সঙ্কটে ধুঁকছে মেদিনীপুরের SBSTC পরিষেবা, বাতিল হল বুকিং করা সব টিকিট

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

সম্প্রতি কিছুদিন পূর্বেই দুর্গাপুরের একটি খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। যেখানে এস বি এস টি সি বাস ডিপোতে বন্ধ ছিল বাস পরিষেবা। কারণ সেখানে তেলের যোগান না থাকার কারণে বাধ্য হয়ে বাস কর্তৃপক্ষকে বন্ধ রাখতে হয়েছিল পরিষেবা। আর এবার সেই একই ধরনের ঘটনা দেখা গেল মেদিনীপুরে। মেদিনীপুর থেকে কলকাতা – হাওড়াগামী বাস ও মেদিনীপুর থেকে দুর্গাপুর- আসানসোলগামী বাস গুলি এদিন বন্ধ রাখা হয় । কারণ হিসেবে জানানো হয় যে ওই বাস ডিপোর সংরক্ষিত তেল শেষ হয়েছে। যার কারণে এদিন পরিষেবা দেওয়া তাদের পক্ষে সম্ভব নয় । একইসঙ্গে বুকিং করা সকল টিকিট বাতিল করা হয় যার ফলে ব্যাপক ক্ষুব্ধ হন যাত্রীরা।

আরো পড়ুন : নিউটাউন বাসস্ট্যান্ডে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করলেন রাহুল সিনহা

জঙ্গলমহল এলাকার যাত্রীরা দূর দূরান্তে পাড়ি দেওয়ার জন্য বেসরকারি বাসের তুলনায় এই সরকারি বাসকেই বেশি নির্ভরযোগ্য বলে মনে করেন । যার কারণে হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন এই এস বি এস টি সি সংস্থার বাসে চড়ে কলকাতা কিংবা অন্যান্য দূরের শহরগুলিতে গিয়ে পৌঁছান। কখনও কখনও তাঁরা অনলাইনে টিকিট বুক করে নেন আবার কখনও বাস ডিপোতে এসেই তাদের শাখা থেকে সংগ্রহ করেন টিকেট। সারাদিনে প্রায় ৩০ থেকে ৪০টি বাস এই ডিপো থেকে অন্যান্য জায়গার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় বলে জানা যায়। তবে আজ আচমকা এইভাবে বাস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ব্যাপক সমস্যায় পড়েন যাত্রীরা।

মেদিনীপুরের কুইকোটা সংলগ্ন এলাকায় এসবিএসটিসির একটি ডিপো করা হয়েছে । বাস কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই ঘটনা একেবারেই প্রতিদিনের নয়। আজ তেল সঙ্কট দেখা দিয়েছে বলেই বাস পরিষেবা বন্ধ রাখতে হয়েছে। একইসঙ্গে যে সকল টিকিটগুলি আগে থেকে বুক করা ছিল সেগুলোকে বাতিল করতে হয়েছে। নির্ধারিত সময় অনুসারে সপ্তাহের তেল এসে পৌঁছায়নি যার কারণে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। তবে এই ঘটনায় যতটা সমস্যায় পড়েছেন যাত্রীরা ততটাই বিরক্তি প্রকাশ করেছেন তাঁরা। প্রথমত স্বল্প খরচে দূরে যাতায়াত করার জন্য সরকারি বাস পরিষেবার উপরেই তাঁরা এক প্রকার নির্ভরশীল । আর সেখানে কোন রকম আগাম নোটিশ না দিয়ে আচমকা পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার ফলে ক্ষুব্ধ তাঁরা। বিকল্প হিসেবে বাধ্য হয়ে ট্রেনের আশ্রয় নিতে হয়েছে তাদেরকে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories