Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভারতে উত্তোলিত প্রথম পতাকা কেমন ছিল? রইল তিরঙ্গার অজানা ইতিহাস

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

সারা বিশ্ববাসীর কাছে তাদের নিজ নিজ দেশের পতাকার গুরুত্ব ঠিক কতখানি তা হয়ত বলে শেষ করা যাবে না। জাতীয় পতাকার সঙ্গেই জড়িয়ে রয়েছে দেশের মর্যাদা আর আদর্শ। প্রতিবছর ১৫ই আগস্ট গর্বের সঙ্গে দেশ জুড়ে উত্তোলন করা হয় ভারতের জাতীয় পতাকা। স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষ উপলক্ষে সরকারি তরফ থেকে নানান ভাবে সাজানো হচ্ছে দেশকে। হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানের মাধ্যমে সেজে উঠছে ভারতীয় নাগরিকদের বাড়ি। তবে এই পতাকার ইতিহাস বহু পুরনো। এমনকি ভারতে স্বাধীনতা আশার অনেক আগে থেকেই এই পতাকার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে বহু মানুষের অবদান এবং লড়াইয়ের ইতিহাস।

•১৮৫৭ সালের ভারতের স্বাধীনতার জন্য পতাকা উত্তোলন করেছিলেন বাহাদুর শা জাফর, তখন পতাকার রং ছিল সবুজ এবং সোনালী। তার উপর আঁকা ছিল পদ্ম আর হাত রুটির ছবি ।

•১৯০৫ সালে ভগিনী নিবেদিতা যে পতাকার নকশা করেন সেটি ছিল লাল রঙের। চারিদিকে ছিল ১০৮ টি প্রদীপ। পতাকার মাঝখানে বাংলায় লেখা ছিল বন্দে মাতরম, এই লেখার মাঝেই ছিল হলুদ বজ্র।

• বিদেশের মাটিতে ভারতের পতাকা উত্তোলন করেছিলেন মাদাম ভিকাজি রুস্তম কামা। ১৯০৭ সালে জার্মানির স্টুটগার্ট-এ এই পতাকা উত্তোলন করা হয়।

•ঠিক তার দশ বছর পর ১৯১৭ সালে বালগঙ্গাধর তিলক এবং অ্যানি বেসান্ত স্বাধীনতা যুদ্ধের জন্য আরেকটি পতাকার কথা পরিকল্পনা করেন।

•১৯২১ সাল ছিল আরো গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই সময় গান্ধীজি আরেকটি পতাকা সামনে নিয়ে আসেন। যার মাঝখানে ছিল চরকা আঁকা।

•১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা লাভের কথা ঘোষণা হলে গণপরিষদের অস্থায়ী কমিটি ভারতের জন্য একটি ত্রিরঙা জাতীয় পতাকা তৈরি করে। যার নকশা করেছিলেন পিঙ্গালি ভেঙ্কাইয়া। এই পতাকার নকশা ভারতীয় গণপরিষদে গৃহীত হয়েছিল ১৯৪৭ সালের ২২শে জুলাই।

•ভারতের সর্বশেষ গৃহীত এই জাতীয় পতাকা প্রকৃতপক্ষে ভারতীয়দের গর্ব। এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে বহু সংগ্রামের ইতিহাস আর আবেগ। এই ত্রিরঙা পতাকার গেরুয়া রং হল স্বার্থহীনতা, সৌর্য আর ত্যাগের প্রতীক। সবুজ রঙ হল সুজলা-সুফলা ভূমি এবং তারুণ্যের প্রতীক। পাশাপাশি এই রঙের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে নির্ভীকতার ধারণা। অপরদিকে সাদা হল পবিত্রতা এবং শান্তির প্রতীক। জাতীয় পতাকার মাঝে থাকা অশোক চক্র অবাধ অগ্রগতির প্রতীক। এর ২৪টি কাঁটা বুঝিয়ে দেয় তার গতি সর্বক্ষণের।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories