Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিচারকের সঙ্গে অভব্য আচরণ! আদালতে এসে ক্ষমা চাইলেন রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের আধিকারিক

।। প্রথম কলকাতা।।

একটি মামলার শুনানিতে এজলাসে উপস্থিত হয়ে বিচারপতির সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ ওঠে রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ধূপগুড়ি শাখার এক আধিকারিকের বিরুদ্ধে। বারবার তাকে সংযত হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এমনকি তা্র ব্যাঙ্কের আইনজীবী তাকে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতির কাছে । কিন্তু এর পাল্টা উত্তরে বিচারপতিকে অসম্মানজনক মন্তব্য করেন ওই ব্যাঙ্কের আধিকারিক । যার কারণে বিচারপতি তাকে গ্রেফতার করার নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে যদিও ব্যক্তিগত জামিনে ছাড়া পান তিনি। আর শনিবার নিজের আচরণে অনুতপ্ত ওই ব্যাঙ্ক আধিকারিক এসে ক্ষমা চান আদালতে।

ঘটনাটির সূত্রপাত গতকাল। শুক্রবার জলপাইগুড়ি আদালতে রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ধূপগুড়ি শাখার একটি মামলার শুনানি ছিল । সেই শুনানিতে অপর পক্ষের আইনজীবী ব্যাঙ্কের ম্যানেজারকে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তবে ওই ম্যানেজার উপস্থিত থাকতে না পারায় তিনি তাঁর পরিবর্তে সাক্ষী হিসেবে পাঠান ব্যাঙ্কের ডেপুটি ম্যানেজারকে ।জানা যায় মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারকের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করেন বৈশাখী ব্যানার্জি নামে ওই রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ডেপুটি ম্যানেজার। এই ঘটনায় এজলাসে থাকা সকলেই প্রায় হতবাক হয়ে যান।

আরো পড়ুন : আরও আঁটোসাঁটো হচ্ছে নবান্নের নিরাপত্তা, প্রবেশের অনুমতি দেবে স্মার্ট কার্ড

তাকে বিচারপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেন ব্যাঙ্কের আইনজীবী শাশ্বতী কর। কিন্তু তাঁর পাল্টা জবাবে তিনি আরও অশালীন আচরণ করেন বিচারপতির সঙ্গে । যার কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয় । পরবর্তীতে তিনি জামিন পান কিন্তু তাকে আদালতে এসে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। নিজের ব্যবহারের জন্য অনুতপ্ত হয়ে তিনি ক্ষমা চান বিচারপতির কাছে। এই ঘটনায় জলপাইগুড়ি বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক বিপুল রায় জানান, এদিন বিষয়টির মীমাংসা হয়ে গিয়েছে। তবে বিচারপতি ওই ব্যাঙ্ক আধিকারিককে আদালতে কীভাবে কথা বলতে হয় এবং আচরণ করতে হয় সেই সংক্রান্ত কিছু বিষয় বলেন।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ব্যাঙ্কের ডেপুটি ম্যানেজারের ওই ধরনের আচরণ একেবারেই গ্রহণযোগ্য ছিল না। যেখানে তাঁর ব্যাঙ্কের আইনজীবী উপস্থিত রয়েছেন সেখানে তিনি নিজের মতো করে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না। কাজেই পরবর্তীতে যেন এই ধরনের কোন ঘটনা না ঘটে তার জন্য সতর্ক করা হয় তাকে। অন্যদিকে রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ধূপগুড়ি শাখার আইনজীবী শাশ্বতী কর জানান, বৈশাখী ব্যানার্জি এদিন আদালতে আসেন এবং নিজের ব্যবহারের জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা করেন। অবশেষে আদালত তাকে ক্ষমা করে দিয়েছে এবং বিষয়টি এখানেই শেষ হয়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories