Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর, যুবকের মৃত্যুতে ক্লোজ ৩ পুলিশ কর্মী

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বেধড়ক মারধরের ফলে মৃত্যু এক যুবকের । আর ওই যুবকের মৃত্যুতে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হলেও গল্ফগ্রীন থানার সার্জেন্ট সহ দুই পুলিশ কর্মীকে। মূলত নিহত ওই যুবকের পরিবারের দাবি , বাড়ি থেকে ওই যুবককে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। কেন তাকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই জানানো হয়নি পরিবারকে। প্রাথমিক ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী জানানো হয়েছিল ওই যুবকের শরীরে আগে থেকেই একাধিক আঘাত ছিল। কিন্তু পরিবারের তরফ থেকে সেই রিপোর্টকেও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। বরং তাঁরা বারবার অভিযোগ তুলেছেন পুলিশের বিরুদ্ধে। যার কারণে এবার গল্ফগ্রীন থানার সার্জেন্ট সহ কনস্টেবল এবং এক সিভিক ভলেন্টিয়ারকে ক্লোজ করা হল।

দীপঙ্কর সাহা নামে এক যুবককে গত ৩১ তারিখ তা্র বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় অভিযুক্ত ওই কনস্টেবল এবং সিভিক ভলেন্টিয়ার। পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয় যে, তাঁরা দুজন জানিয়েছিলেন গল্ফগ্রীন থানার সার্জেন্ট অমিতাভ তামাং তাকে দেখা করার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু কী কারনে দেখা করতে বলেছেন, কেন তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে এই প্রসঙ্গে কিছুই জানাননি তাঁরা। পরিবারের তরফ থেকে বারবার অভিযোগ জানানো হয়েছে যে , পুলিশের বেধড়ক মারের কারণে মৃত্যু হয়েছে দীপঙ্করের। আর এই অভিযোগের ভিত্তিতেই এবার লালবাজারের তরফ থেকে ক্লোজ করা হল গল্ফগ্রীন থানার সার্জেন্ট সহ এক সিভিক ভলেন্টিয়ার এবং কনস্টেবলকে।

ময়নাতদন্তের যে প্রাথমিক রিপোর্ট এসেছে তার ভিত্তিতে পুলিশ জানিয়েছে যে , দীপঙ্করের শরীরে আঘাত লেগেছিল এবং সেই আঘাত থেকেই ঘটনা । আর এই আঘাত প্রায় দু-তিন দিন পুরনো ছিল । কিন্তু তাঁর পরিবারের তরফ থেকে ময়নাতদন্তের রিপোর্টকে কোনভাবেই বিশ্বাস করা হয়নি । কারণ তাদের অভিযোগ পুলিশ এই ক্ষেত্রে প্রভাব খাটাতে পারে। যেহেতু দীপঙ্করের পরিবারকেও জানানো হয়নি কেন তাকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সে ক্ষেত্রে নিয়ম মেনে তাকে থানায় ডাকা হয়েছিল কিনা, কেন তাকে থানায় ডাকা হয়েছিল ,থানায় ডাকার পর কী হয়েছিল এই সমস্ত প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যার কারণে তদন্তের স্বার্থে আপাতত ক্লোজ করা হয়েছে ওই সার্জেন্ট সহ ৩ জনকে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories