Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

সংগ্রহশালায় থাকবে হাওড়ার ঐতিহাসিক এই রেললাইন, অতি প্রাচীন ট্র্যাক দেখতে ভিড় জনতার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

শহর কলকাতার আনাচে-কানাচে ইতিহাস যেন এখনও লুকিয়ে রয়েছে। আর তার প্রমাণ মিলেছে গতকালই। ইতিহাসে মোড়া কলকাতা শহরের বুকেই খোঁজ মিলেছে বহু প্রাচীন স্থাপত্যের । গতকাল হাওড়া স্টেশনে ডি আর এম বিল্ডিং এর সামনে খোঁড়াখুঁড়ির কাজ চলছিল। আর সেখান থেকে যা বেরিয়ে এল তা দেখে রীতিমত চক্ষু চড়ক গাছ ঠিকাদার সংস্থার কর্মীদের। খবর পাওয়ার পরে সেখানে ছুটে এলেন রেলের আধিকারিকরা । যাচাই করে জানা গেল মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এসেছে প্রায় দেড়শ বছর পুরনো রেল লাইন। মেট্রোর হাওড়া স্টেশনে ঢোকার রাস্তা তৈরি করার জন্য মাটি খোঁড়ার কাজ চলছিল। আর সেখান থেকেই উদ্ধার এই অতি প্রাচীন রেল লাইন।

কতদূর পর্যন্ত এই লাইনটি বিস্তৃত তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে চলছে জানার কাজ। রেলকর্তারা অনুমান করছেন যে যখন রেল পরিষেবা শুরু হয়েছিল এই রেল লাইনটি ঠিক সেই সময়কারই। আপাতত খনন কাজ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রেলের তরফ থেকে। একইসঙ্গে জানানো হয়েছে বহু প্রাচীন এই রেল লাইনটিকে রেলের সংগ্রহশালাতে রাখা হবে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হবে ওই রেলের ট্রাক গুলি কী ধাতু দিয়ে তৈরি , আসলে কত বছর পুরনো এই রেলের ট্রাক। যদিও রেল কর্তাদের অনুমান বলছে এর বয়স প্রায় দেড়শ বছর কিন্তু তাও পরীক্ষা-নিরীক্ষা তো করতেই হবে।

ঐতিহাসিক এই রেললাইন উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়তেই হাওড়া স্টেশনে বর্তমানে ভিড় জমেছে সাধারণ জনতার। ইতিহাসের এই নিদর্শন দেখার জন্য একে একে জমা হচ্ছেন তাঁরা । যার কারণে আরপিএফকে হিমশিম খেতে হচ্ছে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। জানা যায়, গতকাল ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ চলছিল। সেই সময়ে ঠিকাদার সংস্থার কর্মীরা মাটি খোঁড়ার কাজে ব্যস্ত ছিলেন। মাটি খুঁড়তে খুঁড়তে আচমকাই ধাতব কিছু বেরিয়ে আসতে থাকে। প্রথমটাই তাঁরা মনে করেছিলেন মাটির নিচে হয়ত দীর্ঘদিন ধরে কোন ধাতব বড় জিনিস রয়ে গিয়েছে। সেটি মাটি খোঁড়ার ফলে বেরিয়ে আসছে।

কিন্তু পরবর্তী কিছু সময় যত দূর পর্যন্ত মাটি খোঁড়া হল দেখা গেল অস্তিত্ব রয়েছে সেই ধাতব পদার্থের। খবর দেওয়া হল রেল আধিকারিকদের। তাঁরা ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হলেন এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার পর যেন রহস্য উন্মোচন করলেন তাতে রীতিমত হতবাক সবাই। জানা গেল সেটি মাটির নিচে পড়ে থাকা কোন ধাতব পদার্থ নয় বরং আস্ত একটি রেললাইন । আপাতত রেল আধিকারিকদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে এই রেল লাইনের জন্য মেট্রোর কাজের কোনরকম অসুবিধা হবে না। বরং রেল লাইনটিকে উদ্ধার করার পর সেটি রেলের সংগ্রহশালাতেই থাকবে ইতিহাসের আরও এক সাক্ষী হিসেবে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories