Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘ক্যানসেল কালচার চলছে বলিউডে’, ডার্লিংস ছবি বয়কট প্রসঙ্গে মুখ খুললেন আলিয়া

1 min read

।।  প্রথম কলকাতা ।।

হচ্ছে টা কী? বলিউডে একের পর এক ছবি বয়কটের ডাকে এমনটাই প্রশ্ন জাগছে পরিচালক-প্রযোজক সহ অভিনেতাদের মনে। কোথাও ভুল তথ্যের প্রচারের দাবিতে আবার কোথাও অভিনেতার বেফাঁস মন্তব্যের জেরে বয়কট করা হচ্ছে সেই ছবি। আর এবার আলিয়া অভিনীত ‘ডার্লিংস’ (Darlings) ছবি মুক্তির আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠলো বয়কটের ডাক। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন মহেশ কন্যা আলিয়া ভাট।

তাঁর দাবি, ‘বয়কটকে বয়কট করা দরকার’। অভিনেত্রী জানিয়েছেন, “বর্তমানে ‘বলিউডে ক্যানসেল কালচার’ চলছে। ছোট ছোট ভুল ধরা হচ্ছে। ভুল না করলেও, খারাপভাবে ট্রোল করা হচ্ছে।” একই সাথে আলিয়ার কথায়, “আমার কোনও ফিলটার নেই। আর নতুন করে কোনও ছাঁকনি হবেও না। আমি মানুষ খারাপ নই। ফলে আজেবাজে কথা আমি এমনিতেও বলি না। আমি ভুল করতে পারি। কিন্তু, সেটা নিয়ে আমার চিন্তা হয় না। কারণ, ভুল না করলে শিখব কী করে? প্রশ্ন করব কী করে? তাই সবার আগে এই ক্যানসেল কালচারকে বাতিল করা দরকার। বয়কটকে বয়কট করা দরকার।”

কিন্তু হঠাৎ আলিয়ার ছবি বয়কটের ডাক কেন? সেই উত্তর খুঁজতে গিয়ে উঠে আসে ছবির প্রেক্ষাপট এর কারণ। আসলে ‘ডার্লিংস’ ছবিতে বধূ নির্যাতনের শিকার বদরুন্নিসার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে আলিয়াকে। কিন্তু তথা কথিত গৃহবধূর মতো পড়ে পড়ে মার খেতে নারাজ বদরুন্নিসা। স্বামী হামজাকে (বিজয় ভার্মা) শিক্ষা দিতে তৈরি হচ্ছে সে। নিজের হাতে স্বামী হামজাকে শাস্তি দিচ্ছে। হাত বেঁধে জলের মধ্যে মুখ ডুবিয়ে শাস্তি দিচ্ছে তাঁকে। একই সাথে বদরুন্নিসা বলছে, “আমি ওকে মারতে চাই না।

কিন্তু ও আমার সঙ্গে যা যা করেছে, সেগুলিই শুধু ফিরিয়ে দিতে চাই।” প্রসঙ্গত, সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা ছবির ট্রেলারে দৃশ্যায়িত এমন দৃশ্য প্রকাশ্যে আসতেই হইচই শুরু হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনদের দাবি, “পুরুষের উপর চলা হিংসা নিয়ে মজা করা বন্ধ হোক।” আবার কারোর দাবি “পুরুষের উপর চলা গার্হস্থ্য হিংসার ঘটনাকে প্রোমোট করছেন আলিয়া ভাট। তাই আর ওঁকে কুইন বলতে পারছি না। বয়কট করা হোক ওঁকে।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories