Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ফের মাথাচাড়া দিচ্ছে করোনা! ভয় নেই, আপনাকে বাঁচাবে এই খাবারগুলি

।। প্রথম কলকাতা ।।

ফের মাথাচাড়া দিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ইতিমধ্যেই দেশে বেশ কয়েকবার করোনা ঢেউ আছড়ে পড়েছে। তবে এখনো দাপিয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছে ওমিক্রনের বিভিন্ন ধরনের ভ্যারিয়েন্ট। এগুলি থেকে খুব একটা আতঙ্কিত হওয়ার প্রয়োজন নেই। যথাযথভাবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চললে এবং পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করলেই করোনা থেকে দূরে থাকা যাবে । বর্তমানে সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেলেও যারা সংক্রমিত হচ্ছেন তাদের বেশিরভাগ জনই করোনা টিকা নেননি। আবার অনেকেই বুস্টার ডোজ নেননি। হয়ত করোনা সংক্রমণ আপনাকে ঘায়েল করতে পারবে না কিন্তু সংক্রমিত হলে থাকতে হবে আইসোলেশনে। মানতে হবে প্রচুর নিয়ম। এছাড়াও চিন্তার ছাপ রয়ে গিয়েছে বয়স্ক এবং শিশুদের ক্ষেত্রে। তাই করোনার চতুর্থ ঢেউ থেকে বাঁচতে বিশেষ ভাবে নজর দিন স্বাস্থ্যবিধি এবং খাদ্য তালিকার দিকে। খেয়াল রাখতে হবে আপনি সারাদিনে কোন খাবার খাচ্ছেন এবং ঠিক কোন কোন পানীয় গ্রহণ করছেন। করোনা সংক্রমণের মোকাবিলা এবং সংক্রমিত হওয়ার পর দ্রুত সেই অবস্থা থেকে পুনরুদ্ধার পেতে এই খাবারগুলি আপনাকে অনেকাংশে সাহায্য করবে। খাবার খেতে হবে জিঙ্ক, ভিটামিন সি, ডি এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার।

•ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে রাখতে পারেন ব্রোকলি, স্ট্রবেরি, পেঁপে, পেয়ারা, কিউই ফ্রুট প্রভৃতি। ভিটামিন সি হল অ্যাসকরবিক অ্যাসিড। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এই ভিটামিন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

•করোনাকে রুখতে আপনি আপনার খাবারের তালিকায় ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার রাখতে পারেন। ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কোনো রোগীকে দ্রুত সুস্থ করতে পারে । এক্ষেত্রে খাদ্য তালিকায় রাখুন দই, দুধ, মাশরুম, ডিমের কুসুম প্রভৃতি। আরো ভালো হয় যদি প্রতিদিন সকালের দিকে প্রায় এক ঘণ্টা রোদে বসতে পারেন।

•এছাড়াও করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা করতে পারে জিঙ্ক সমৃদ্ধ খাবার। যেমন মাছ, ছোলা, কুমড়োর বীজ, কাজু প্রভৃতি। এই খাবারগুলিতে রয়েছে অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্য যা গুরুতর সংক্রমণের ক্ষমতা কমিয়ে দেয়।

• অতিমারির প্রথম থেকেই চিকিৎসকরা বলে আসছেন প্রোটিন জাতীয় খাবার খেতে। করোনায় সংক্রমণ থেকে দূরে থাকতে কিংবা সেখান থেকে সুস্থ হয়ে উঠতে ডাল, দুগ্ধযাত্র খাবার, ডিম ,মাছ ,বাদাম, বিভিন্ন বীজ, মুরগির মাংস খুবই উপকারী।

• পানীয়ের মধ্যে রাখতে পারেন কমলার রস, আমলার রস, নারকেল জল , লস্যি প্রভৃতি। এই ধরনের পানীয়ে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে খনিজ এবং ভিটামিন। যা শরীরের ভিটামিনের ঘাটতি মেটাবে এবং ক্ষতিকারক টক্সিনকে শরীর থেকে বার করে দেবে। সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা। করোনা থেকে আতঙ্কিত নয়, সতর্ক থাকুন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories