Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Purba Medinipur: মহিষাদলে টেন্ডার দুর্নীতি নিয়ে সরব বিজেপি, অভিযোগ উড়িয়ে দিল শাসকদল

।। প্রথম কলকাতা।।

শাসক দলের বিরুদ্ধে বিরোধী দলের হাজারো অভিযোগ উঠে আসে । আর সেই সকল অভিযোগ গুলিকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করে যায় তৃণমূল কংগ্রেস। এই ছবি বারবার ধরা পড়েছে রাজ্যে। কিন্তু তার জন্য শাসকদলের বিরুদ্ধে অভিযোগের সংখ্যা কিছু কমেনি। এবার পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল বিধানসভার অন্তর্গত এলাকার বিজেপি সংগঠন স্থানীয় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলল টেন্ডার দুর্নীতি নিয়ে । তাদের অভিযোগ মহিষাদলের ফেরি সার্ভিসের টেন্ডার নিয়ে দুর্নীতি করছে তৃণমূল। যার বিরোধীতা করতে ফেরিঘাটের সামনেই বিক্ষোভ দেখান বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

জানা যায়, মহিষাদল বিধানসভার অন্তর্গত অমৃতবেরিয়া অঞ্চলের মায়াচর একটি বিচ্ছিন্ন দ্বীপ। এই দ্বীপে বর্তমানে বসবাস ১০ হাজারেরও বেশি মানুষের ম।হিষাদল থেকে এই ভূখণ্ডটি আলাদা হলেও সেখানকার মানুষের দৈনন্দিন কাজের জন্য মহিষাদল আসতেই হয়। পার হতে হয় রূপনারায়ন নদী কারণ প্রশাসনিক কাজ হোক কিংবা স্কুল কলেজ হোক কিংবা চিকিৎসার জন্যই হোক না কেন, সবকিছুতেই পিছিয়ে রয়েছে মায়াচর । তাই প্রতিদিনই মায়াচড়ের মানুষকে আসতে হয় মহিষাদলে। যার কারণে খেয়াই তাদের একমাত্র ভরসা।

তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে , লকডাউনের পূর্বে যখন মহিষাদলের ফেরি সার্ভিসের টেন্ডার পাস হয়েছিল ৩ লক্ষ ৮৫ হাজার টাকায় সেই সময় নদী পার হতে গেলে খেয়ার ভাড়া দিতে হতো পাঁচ টাকা। কিন্তু বর্তমানে টেন্ডার পাস হয়েছে অনেক কম টাকায়। বলা যায় পূর্বের তুলনায় অর্ধেকেরও কম। যেখানে টেন্ডার দেড় লক্ষ টাকার সেখানে খেয়ার ভাড়া বেড়ে হয়েছে ১০ টাকা। যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই মায়াচড়ের বাসিন্দাদের অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। কারণ সেখানকার অধিকাংশ বাসিন্দাই আর্থিক দুরবস্থার মধ্যে রয়েছেন। কাজেই তৃণমূল নিজেদের সুবিধার স্বার্থে সাধারণ মানুষকে অসুবিধার সম্মুখীন করছে। এই অভিযোগে রবিবার সকালে বিজেপির তরফ থেকে ফেরি ঘাটের সামনে বিক্ষোভ দেখা যায় ব্যানার পোস্টার হাতে। তবে বিজেপির তরফ থেকে ওঠা এই অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে শাসক দল।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories