Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অমরনাথে আটকে থাকা বাঙালিদের ফেরাতে উদ্যোগী নবান্ন, চালু হল হেল্পলাইন নাম্বার

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

অমরনাথে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে আটকে পড়া পর্যটকদের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলার ১১ থেকে ১২ জন পর্যটক আছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়েছে। তারা সকলেই নিরাপদে আছেন।ইতিমধ্যেই এই প্রসঙ্গে ট্যুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শোকপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘অমরনাথের প্রাকৃতিক দুর্যোগে শোকাহত এবং বিস্মিত। মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা রইল।’ একইসঙ্গে তিনি জানান, রাজ্যের তীর্থযাত্রীদের ফিরিয়ে আনার জন্য সবরকম চেষ্টা করা হচ্ছে। চালু হয়েছে কন্ট্রোল রুম, তার নাম্বার 033- 22143526।

অন্যদিকে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের সঙ্গেও নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে রাজ্য সরকার। দুর্গতদের পরিবারকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, বাংলার ২১ পর্যটক আটকে রয়েছে অমরনাথে। তাদের মধ্যে ১৫ জন হাওড়ার বাসিন্দা।  তবে তাদের কারোর হদিশ মেলেনি বলেই খবর। 

অন্যদিকে নীলগ্রর, বালটাল এলাকায় যেখানে পুণ্যার্থীরা আটকে আছেন সেখানে পৌঁছে গিয়েছেন জওয়ানরা। এখনও চলছে উদ্ধারকাজ। জানা গিয়েছে, এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থাও করা হয়েছে। বর্তমানে এনডিআরএফের তিনটি দলও উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জম্মু ও কাশ্মীরের অমরনাথ গুহার কাছে মেঘভাঙা বৃষ্টিতও এখনও পর্যন্ত ১৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া নিখোঁজ হয়েছেন অনেকে। এনডিআরএফ, এসডিআরএফ এবং আইটিবিপি-র দল উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।মেঘ ভাঙা বৃষ্টিতে বেশ কয়েকটি তাঁবু ভেসে যায়। এর কবলে পড়ে বহু মানুষ। তথ্য অনুসারে, বালতাল বলে একটি এলাকায় যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা ঘটেছে। আইটিবিপি এবং এনডিআরএফ দলও মোতায়েন করা হয়। উপস্থিত সবাইকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories