Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Canning: ক্যানিংকাণ্ডের প্রথম গ্রেফতারি, TMC নেতাদের গতিবিধিতে নজর রফিকুল ঘনিষ্ঠের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

ক্যানিংয়ে দিনের আলোয় প্রকাশ্যে যে নৃশংসভাবে খুন করা হয় তিন তৃণমূল নেতাকে সেই স্মৃতি মানুষের মনে এখনও টাটকা। ঘটনার পর প্রায় দুদিন পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত মূল অভিযুক্ত সহ ৬ জন যাদের নামে এফ আই আর দায়ের করা হয়েছিল তাঁরা সকলেই অধরা । তবে ক্যানিং কাণ্ডে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হল এক অভিযুক্ত। এই হত্যাকাণ্ডে তাঁর সরাসরি কোন যোগসূত্র না থাকলেও ওই তিন তৃণমূল নেতাকে হত্যার কাজে সাহায্য করেছিল সে। রফিকুলের নির্দেশ মত তিন তৃণমূল নেতার ওপর নজরদারি রাখছিল সে। অবশেষে গতকাল পুলিশ গ্রেফতার করে তাকে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতের নাম আফতাবউদ্দিন। সে মূলত স্বপন মাঝি সহ ভূতনাথ এবং ঝন্টুর গতিবিধির উপর নজর রাখছিল। ঘটনার দিন যখন ওই পঞ্চায়েত সদস্য এবং তাঁর দুই সঙ্গী নারায়নতলা দিয়ে আসছিলেন সেই খবর আফতাবউদ্দিন রফিকুল এবং তাঁর সঙ্গীদের দিয়েছিল। এই ঘটনায় যাদের নামে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে তার মধ্যে একজন হলেন বশির। বর্তমানে সেও পলাতক । আফতাবউদ্দিন সম্পর্কে বশিরের ভাই বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও রফিকুলের সঙ্গে আফতাবের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের । পুলিশি জেরার মুখে পড়ে এই ঘটনার কথা স্বীকার করেছে সে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, আফতাবউদ্দিন ক্যানিংয়েরই বাসিন্দা কিন্তু গতকাল রাতে কুলতলি থেকে তাকে পুলিশ গ্রেফতার করে। হত্যাকাণ্ডের পর কুলতলিতে এক আত্মীয়ের বাড়িতে গা ঢাকা দিয়েছিল আফতাবউদ্দিন কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি । অবশেষে পুলিশের হাতে ধরা পড়তে হল তাকে। শনিবার তাকে আদালতের পেশ করা হবে বলে খবর পুলিশ সূত্রে। কিন্তু এই ঘটনার যারা মূল অভিযুক্ত সেই ৬ জন এখনও পর্যন্ত উধাও। ঘটনা ঘটার পর প্রায় ৪৮ ঘন্টা সময় পেরিয়ে গিয়েছে কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাদের কোন খোঁজ মেলে নি। অন্যদিকে পুলিশ তদন্তের কাজ এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য প্রায় ৮-৯ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন বলে জানা গিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে রফিকুলের পরিবারকেও কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাঁর হদিশ মেলেনি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories