Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Hybrid Car : হাইব্রিড গাড়ি কাকে বলে? কেন কেনা উচিত? ভারতে উপলব্ধ কম দামি হাইব্রিড কার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

বিগত দিনে ভারতে তুমুল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে হাইব্রিড গাড়ি। ইলেকট্রিক গাড়ির সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে হাইব্রিড গাড়ির চাহিদা। কিন্তু এখনও বহু মানুষ আছেন যারা এই নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নয়। যার ফলে কমছে উৎসাহ এবং ফলস্বরূপ এই ধরণের উদীয়মান প্রযুক্তি সম্পন্ন গাড়ির চাহিদা কোথাও যেন স্থিমিত হয়ে পড়ছে।

হাইব্রিড গাড়ি আসলে কি?

সোজা ভাষায় বললে, জীবাশ্ম বা প্রথাগত জ্বালানির পাশাপাশি বৈদ্যুতিক শক্তি দ্বারা চালানো যায় এমন গাড়ি হল হাইব্রিড গাড়ি। এই গাড়িতে দু রকম পাওয়ারট্রেন – এক ইন্টার্নাল কম্বাসন ইঞ্জিন অর্থাৎ পেট্রোল বা জিজেল মোটর এবং একটি ইলেকট্রিক মোটর। এই দুই মোটরের সহায়তায় গাড়ি পরিচালিত হয়। তবে হাইব্রিড গাড়ির মধ্যে একাধিক বিকল্প রয়েছে যেমন প্লাগ-ইন হাইব্রিড, মাইল্ড হাইব্রিড ইত্যাদি।

হাইব্রিড গাড়ি জনপ্রিয়তার কারণ?

মূলত, একটি গাড়িতে দু ধরণের ইঞ্জিন থাকায় গাড়ির ফুয়েল ইকোনোমি বজায় থাকে। একদিকে জীবাশ্ম জ্বালানির সুবিধা এবং অন্যদিকে ইলেকট্রিক মোটরের সুবিধা। পাশাপাশি এই ধরণের গাড়ি পরিবেশ-বান্ধব হিসাবে বিবেচিত। তাছাড়া হাইব্রিড গাড়ি কেনার জন্য সরকারের তরফে বিভিন্ন ট্যাক্স সুবিধাও দেওয়া হয়। হাইব্রিড গাড়ির আরও একটি সুবিধা হল এটির রি-জেনারেটিভ ব্রেকিং সিস্টেম।

রি-জেনারেটিভ ব্রেকিং সিস্টেম : ব্রেক প্রয়োগের গতি থেকে যে শক্তি সঞ্চয় করা হয়ে থাকে তা ব্যাটারি রিচার্জ করতে ব্যবহৃত হয়। এই ধরনের প্রযুক্তি র ফলে আপনাকে নিয়মিত ব্যাটারি রিচার্জ করতে হবে না।

ইতিবাচকের পাশাপাশি রয়েছে নেতিবাচক দিকও

১. পেট্রোল-ডিজেল চালিত গাড়ির তুলনায় হাইব্রিড গাড়ির দাম বেশি হয়।

২. জীবাশ্ম জ্বালানি ও ইলেকট্রিক মোটর থাকায় রেঞ্জ অনেক কমে যায়।

৩. হাইব্রিড গাড়ির ওজন জ্বালানি চালিত গাড়ির তুলনায় বেশি হয়। কারণ একাধিক যন্ত্র রাখতে হয় গাড়িতে। যার ফলে হ্যান্ডলিংয়ে নিয়ন্ত্রণ কমে আসে চালকের।

৪. হাইব্রিড গাড়িতে থাকে হাই-ভোল্টেজে ব্যাটারি, যা দুর্ঘটনার সময়কালে বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে।

ভারতে উপলব্ধ কম দামি হাইব্রিড গাড়ি

ভারতে সবচেয়ে কম দামী হাইব্রিড গাড়ি Maruti Suzuki Baleno যার দাম ৬.৪২ লক্ষ টাকা থেকে ৯.৬০ লক্ষ টাকা রয়েছে। এই গাড়িতে মাইল্ড হাইব্রিড পাওয়ারট্রেন এবং ১.২ লিটারের পেট্রোল ইঞ্জিন রয়েছে।

দ্বিতীয় সাশ্রয়ী মূল্যের গাড়ি হল Maruti Suzuki Ertiga। যার দাম ৮.৩৫ লক্ষ টাকা থেকে শুরু। এতে মাইল্ড হাইব্রিড ১.৫ লিটার ৪ সিলিন্ডার ন্যাচারালি অ্যাসপিরেটেড পেট্রোল ইঞ্জিন রয়েছে।

এর পরে রয়েছে MG Hector Plus। যার দাম শুরু ১৪.৬৫ লক্ষ টাকা থেকে। এই ৭ আসনের SUV-তে রয়েছে মাইল্ড হাইব্রিড ভেরিয়েন্টটি ১.৫ লিটার টার্বোচার্জড পেট্রোল ইঞ্জিন।

উপরোক্ত তিন গাড়ি ছাড়াও হাইব্রিড গাড়ির মধ্যে উল্লেখযোগ্য Honda City, Toyota Camry, Maruti Suzuki Vitara Brezza, Maruti Suzuki XL6, Lexus LS, NX এবং RX।

Categories