Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘খুনের রাজনীতি’ চলছে বাংলায়! ক্যানিংকাণ্ডে BJP-কে কড়া ভাষায় আক্রমণ ফিরহাদের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

ক্যানিংয়ে এক তৃণমূল নেতা সহ দুই তৃণমূল কর্মীর নৃশংস খুনের ঘটনায় ফের একবার শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তর্জা । তৃণমূলের তরফ থেকে অভিযোগের আঙুল উঠছে বিজেপির দিকে। কিন্তু বিজেপির তরফ থেকে এই অভিযোগ একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে । দিনে দুপুরে তিন তৃণমূল নেতা সহ কর্মীকে গুলি করে আর তারপরে মৃত্যু নিশ্চিত করে কুপিয়ে খুন করার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত থমথমে ক্যানিং। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন রাজনৈতিক মহলের একাধিক ব্যক্তিত্বরা । আর এবার ক্যানিংকাণ্ড নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম । রাজ্যের বিরোধীদল বিজেপিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তিনি।

ফিরহাদ হাকিমের কথায়, ” খুনের রাজনীতি বিজেপি যা করছে , বাংলাকে গুজরাট বানানোর চেষ্টা করছে । কিন্তু সেটা আমরা করতে দেব না। খুনোখুনির রাজনীতি বাংলায় চলবে না। পুলিশকে বলা হয়েছে খুনিদের বের করে কঠোর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদেরকে হত্যা করে তৃণমূলকে বাংলা থেকে সরানো যাবে না। তৃণমূল কংগ্রেস আর মমতা ব্যানার্জি মানুষের মনে রয়েছে । যতই তুমি আমাদের খুন কর, বাংলা থেকে আমাদের সরাতে পারবে না”।

অন্যদিকে, বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ শুক্রবার সকালেই ক্যানিং হত্যাকাণ্ডে বিজেপির দিকে সন্দেহের আঙুল ওঠার প্রসঙ্গে বলেন, বিজেপিকে খুনোখুনির রাজনীতি করতে হয় না। গুজরাট থেকে গুয়াহাটি আর কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী পর্যন্ত দেখলেই বোঝা যাবে বিজেপি জিতে চলেছে। সেখানে জেতার জন্য বোম বন্দুক ব্যবহার করতে হয় না বরং বিজেপি জেতার পরে সেখানে বোম বন্দুকের ব্যবহার বন্ধ হয়েছে। বিহার উত্তরপ্রদেশকে সামলেছে বিজেপি, শান্ত করে দিয়েছে। এমনকি কাশ্মীরকেও শান্ত করেছে বিজেপি , এমনটাই দাবি তাঁর।

পশ্চিমবঙ্গ বর্তমানে সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। কারণ বাড়িতে বাড়িতে বোম বন্দুক মিলছে আর সমস্ত অসামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা রয়েছে তৃণমূলে। তাঁরাই দল চালাচ্ছে।উল্লেখ্য, ক্যানিং কাণ্ডে তৃণমূল নেতা সহ দুই তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হিসেবে নাম উঠে এসেছে রফিকুলের । তবে এখনও পর্যন্ত সে ছাড়াও আরও পাঁচ জনের নামে এফ আই আর দায়ের করা হয়েছে থানায়।এখনও পর্যন্ত পুলিশ প্রায় আট-নয় জনকে এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। হত্যাকাণ্ডের কিনারা করতে তৎপর পুলিশ প্রশাসন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories