Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Purba Bardhaman:বিষ মদকাণ্ডে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে পূর্ব বর্ধমানে,একের পর এক বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা

।। প্রথম কলকাতা।।

মদে বিষক্রিয়া আর সেই মদ পান করার ফলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশ কয়েকজন। এই ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় পূর্ব বর্ধমান জেলার বাহির সর্বমঙ্গলা পাড়া এলাকায় । তাদেরকে ভর্তি করা হয় বর্ধমান মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালে কিছুক্ষণ পরে শহরের অপরপ্রান্তে আরও একজন বিষ মদ পান করার ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং তাকে ভর্তি করা হয় বেসরকারি নার্সিংহোমে।এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় একের পর এক মৃত্যুতে স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বাড়ছে। এই বিষ মদ এল কোথা থেকে? তাঁরা একই জায়গা থেকে এই মদ কিনেছিলেন কিনা নাকি জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এই বিষ মদ ছড়িয়ে রয়েছে তা খতিয়ে দেখতে এবার তদন্তে নেমেছে বর্ধমান থানার পুলিশ।

জানা যায় ,গতকাল রাতে মদে বিষক্রিয়ার কারণে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন পাঁচজন। তাদের মধ্যে দুজনকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আর বাকি তিনজনকে ভর্তি করা হয় শহরের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী এই ঘটনায় পরপর মৃত্যু হয়েছে চারজনের। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি থাকা ২ যুবকেরও মৃত্যু হয়। বিষ মদ পানের কারণে মৃত ব্যক্তিদের নাম শেখ সুরবতী, শেখ হালিম, চিন্ময় দে এবং গৌতম দে। এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই শহর জুড়ে তল্লাশি অভিযানে নামে জেলা পুলিশ প্রশাসন।

আজ বর্ধমানের এডিজি ওয়েস্টার্ন জোন সঞ্জয় সিং এবং পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেনের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালান। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, শহরে যে সমস্ত ছোট হোটেল যেখানে খাবার সহ মদও বিক্রি করা হয় সেই সমস্ত দোকানেও তল্লাশি চালানো হবে। এছাড়াও মৃতদের মধ্যে একজনের পরিবারের দাবি, তিনি লক্ষ্মীপুর রোডের কাছে একটি দোকান থেকে এই মদ গতকাল রাতে কিনে এনেছিলেন। তা খাওয়ার পরে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি । এই সকল অভিযোগ গুলির ভিত্তিতে বর্তমানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে বর্ধমান শহর জুড়ে। বিষ মদ শহরে এল কোথা থেকে তা জানতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories