Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মহুয়ার কাছেই ক্ষমা চাওয়া উচিত! বিতর্কের মাঝে পাল্টা যুক্তি তৃণমূল সাংসদের

।।প্রথম কলকাতা।।

বাংলায় ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লাগার কারণে একের পর এক ঘটনা ঘটে গিয়েছে। প্রথমত নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে গোটা দেশে যেখানে প্রতিবাদের আগুন জ্বলেছে সেখানে বাংলায় প্রতিবাদের নামে রীতিমত তাণ্ডব চালিয়েছেন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ। আর এবার হিন্দু ধর্মের দেবী মা কালীকে নিয়ে মহুয়ার মৈত্রের মন্তব্যকে ঘিরে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে । বিরোধীদল বিজেপি তাঁর গ্রেফতারের দাবি পর্যন্ত তুলেছে। তবে মহুয়া মৈত্রের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে যে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ উঠেছে আসলে এই ঘটনায় আঘাত কেউ যদি পেয়ে থাকে তাহলে তিনি নিজে।

কাজেই কারও যদি ক্ষমা চাইতে হয় তাহলে অবশ্যই সেটা তিনি নন বরং তাকে নিয়ে এই ধরনের নোংরা রাজনীতি করার জন্য তাঁর কাছেই ক্ষমা চাওয়া উচিত। দেবী কালীকে পুজোয় কী নিবেদন করা হয় তা কারও অজানা নয় এবং তিনি যা বলেছেন তা এক বর্ণও মিথ্যে নয়, এমনটাই দাবি তাঁর। বঙ্গ বিজেপির বিরুদ্ধে তিনি বলেন, বাংলায় কী ভাবে কালী পুজো করা হবে তা বাইরে থেকে আসা বিজেপি দলের শেখানোর প্রয়োজন নেই। বিজেপির হিন্দুত্ববাদ সংকীর্ণ আর তাদের সেই সংকীর্ণ ধারণা তাঁরা কোনভাবেই তাদের পুজোর রীতির উপর চাপিয়ে দিতে পারেন না।এই বিতর্ক শুরুর মুখেই মহুয়া আত্মপক্ষকে সমর্থন করে জানিয়েছিলেন যে তিনি কালীর একনিষ্ঠ উপাসক।কাজেই সত্যের জয় হবেই। এই বিতর্কের সূত্রপাত হয় তাঁর একটি মন্তব্যকে ঘিরে , যেখানে তিনি বলেছিলেন যে দেবী কালীকে পুজোয় খাবার এবং পানীয় হিসেবে নিবেদন করা হয় মাংস ও মদ।

আর এর পরেই তার এই বক্তব্যকে ঘিরে তোলপাড় হয় রাজ্য । বিরোধীদের তরফ থেকে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ আসে তাঁর বিরুদ্ধে । এমনকি বিরোধী দলনেতার শুভেন্দু অধিকারী হুঁশিয়ারি দেন যে, তাঁর এই মন্তব্যের জন্য যদি শাসক দল দশ দিনের মধ্যে সাংসদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করেন তাহলে অবশ্যই বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হবেন তাঁরা।মহুয়ার এই মন্তব্যের জেরে কেউ ব্যক্তিগতভাবে যদি আঘাত পেয়ে থাকেন সে ক্ষেত্রেও কি নিজের মন্তব্য থেকে সরে আসা বা ক্ষমা চাওয়ার মত চিন্তাভাবনা আসবে না তাঁর ? এই প্রশ্নের উত্তরে মহুয়া মৈত্রের স্পষ্ট জবাব, ” ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না বরং আমার কাছেই ক্ষমা চাওয়া উচিত । কারণ আঘাত যদি কেউ পেয়ে থাকে সে আমি”।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories