Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Abhishek Banerjee: তৃণমূল কংগ্রেস হারালো একনিষ্ঠ কর্মীদের, ক্যানিংকাণ্ডে শোকবার্তা অভিষেকের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রকাশ্যে একজন তৃণমূল নেতা সহ দুই তৃণমূল কর্মীকে জনবহুল রাস্তায় কুপিয়ে খুন করার ঘটনা ঘটে । দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিংয়ে প্রথমে তাদেরকে গুলি করা হয় এবং মৃত্যু নিশ্চিত করতে এলোপাথাড়ি কোপানো হয়। এই ঘটনায় রীতিমত চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে রাজ্যে । আর এবার এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করলেন সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্ট করেন, ” দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিংয়ের গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য স্বপন মাঝি ,ঝন্টু হালদার ও ভূতনাথ প্রামানিকের দুর্ভাগ্যজনক প্রয়াণে আমি শোকস্তব্ধ। তৃণমূল কংগ্রেস তিনজন একনিষ্ঠ সৈনিক হারালো। আমি তাদের বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করছি। তাদের পরিবার-পরিজন, বন্ধু-শুভানুধ্যায়ীদের গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি”।

জানা যায়, আসন্ন একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে একটি মিটিং ডাকা হয়েছিল। সেই মিটিংয়ে যোগ দিতেই যাচ্ছিলেন স্বপন মাঝি এবং তাঁর সঙ্গীরা। কিন্তু মাঝপথে কয়েকজন দুষ্কৃতী তাদের পথ আটকায় । আর তারপর প্রথমে তৃণমূল নেতা স্বপনকে গুলি করা হয় এরপরে তাঁর গলায় এলোপাথাড়ি কোপ বসানো হয়। তাঁর দুই সঙ্গী পালিয়ে যাবার চেষ্টা করলে একই রকম ভাবে খুন করা হয় তাদেরকেও একই রকম ভাবে খুন করা হয়। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রাজনৈতিক মহলের বিভিন্ন ব্যক্তিত্বরা ।

যদিও এই ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে বিজেপির দিকেই।ক্যানিং পশ্চিমের তৃণমূল বিধায়ক পরেশরাম দাস জানান, স্বপন মাঝি বেশ কিছুদিন ধরেই প্রাণ সংশয়ে ভুগছিলেন। তাঁর কাছে তিনি এই বিষয়টি জানাতে এসেছিলেন । তাঁর নিরাপত্তার বিষয়ে তিনি নিজে ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছিলেন তাকে। কিন্তু কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করার আগেই এই ঘটনা । এই নৃশংস খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমত থমথমে ক্যানিংয়ের ওই এলাকা।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories