Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঋষি কাপুরের হাতে হয়েছিলেন নির্যাতনের শিকার! ছেড়েছিলেন অভিনয়, জন্মদিনে রইলো নীতুর অজানা কথা

1 min read

।।  প্রথম কলকাতা ।।

৬৩-র গন্ডি পেরিয়ে ৬৪ তে পা দিলেন নীতু সিং তথা নীতু কাপুর। বয়স ষাটের গন্ডি পেরোলেও জীবনে তাঁর ছাপ পরেনি একটুও। আগের মতোই একই রকম গ্ল্যামারাস সুন্দরী রয়েছেন অভিনেত্রী। রূপ এবং মনভোলানো হাসিতে আজও তিনি বর্তমান প্রজন্মের যে কোনও অভিনেত্রীকে অনায়াসে টেক্কা দিতে পারেন। আজ ৬৪ বছর বয়সে এসেও ভক্তদের মনে রাজত্ব করছেন তিনি। তবে কাপুর পরিবারের বধূ হয়ে আসার পরেই কেরিয়ারকে বিদায় জানাতে হয়েছিল অভিনেত্রীর। জন্মদিনে রইলো তেমনই নীতুর অজানা কিছু কথা।

১৯৫৮ সালে দিল্লিতে জন্ম। বলিউডে নীতু নামে পরিচিত হলেও তাঁর আসল নাম হার্নিত কৌর। ১৯৬৬ সালে মাত্র আট বছর বয়সে ‘সুরাজ’ ছবির হাত ধরে অভিনয়ে কেরিয়ার শুরু করেন অভিনেত্রী। খুব কম সময়ের মধ্যেই পৌঁছে ছিলেন খ্যাতির শিখরে। কিন্তু সেই সাফল্য বেশিদিন ধরে রাখতে পারেন নি অভিনেত্রী। কেরিয়ারকে কার্যত বিসর্জন দিয়ে খুব কম বয়সেই প্রেম করে বলিউডের বিশিষ্ট অভিনেতা ঋষি কাপুরের সাথে সাঁতপাকে বাঁধা পরেন অভিনেত্রী। কাপুর পরিবারের নিয়ম অনুযায়ী বিয়ের পর ছাড়তে হয় অভিনয়। বিয়ের পর একাধিক ছবিতে কাজ করার অফার এলেও তা ফিরিয়ে দিতেন নীতু। স্বামী-সংসার নিয়েই কাটতো তাঁর দিন। কিন্তু  ভালবাসা ভরা দাম্পত্যের এই সুন্দর ছবির নেপথ্যে রয়েছে অজানা কিছু সত্যি।

বহুবার বহু সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী জানা যায়, স্ত্রী নীতুর উপরে নাকি শারীরিক অত্যাচার করতেন ঋষি! দুজনের বিয়েতে ভালবাসা ছিল ঠিকই, কিন্তু বেশ কিছু সমস্যাও ছিল দুজনের মধ্যে। প্রায়শই নেশায় ডুবে থাকতেন অভিনেতা। আর মদ্যপ অবস্থায় নীতুর গায়ে হাত তুলতেন ঋষি। দিনের পর দিন অত্যাচার সহ্য করতে করতে এক সময় সীমা ছাড়ায় নীতুর। শোনা যায়, অভিনেত্রী নাকি একবার বাড়ি ছেড়েও চলে গিয়েছিলেন। গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ জানানো হয়েছিল ঋষি কাপুরের বিরুদ্ধে।

তবে সেই পিরিস্থিত বেশিদিন গড়ায়নি। কিছুদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে ফিরে আসেন নীতু এবং শেষ দিন পর্যন্ত স্বামীর পাশে ছিলেন অভিনেত্রী। দেখতে দেখতে ঋষি কাপুরের মৃত্যুর  পর তৃতীয় জন্মদিন এটা নীতু কাপুরের।

প্রসঙ্গত, তাঁর অভিনয় জীবনের পরিসর খুব ছোট হলেও বিয়ের আগে মাত্র ১০ বছরে মোট ৫০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন নীতু। শিশু শিল্পী হিসাবে ‘দশ লাখ’, ‘দো কালিয়া’, ‘ওয়ারিশ’, ‘পবিত্র পাপী’ মতো ছবিতে অভিনয় করে নজর কেড়েছিলেন দর্শকদের। এরপর প্রাপ্ত বয়স্ক বয়সে এসে সর্বপ্রথম ‘রিকশাওয়ালা’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এরপর ছিল দীর্ঘ ২৬ বছরের বিরতি। ২০০৯ সালে ‘লাভ আজকাল’ ছবিতে স্বামীর হাত ধরেই পর্দায় ফিরেছিলেন অভিনেত্রী। তবে সব মিলিয়ে বাস্তব জীবনের প্রেমিকের সাথে মোট ১২ টি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন নীতু। ২০১৩ সালে ছেলের সাথে ‘বেশরম’ ছবিতে জুটি বাধঁতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। ২০১১ সালের জী সিনে এ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠানে স্বামীর সাথে পেয়েছিলেন ‘বেস্ট লাইফটাইম জোড়ি’ অ্যাওয়ার্ড।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories