Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘রাজ্যপালকে অপমান করে আজ তারই পায়ে পড়তে গেছে তৃণমূল’, ফের বেলাগাম দিলীপ

।।প্রথম কলকাতা।।

দিলীপ ঘোষ বরাবরই সংবাদ মাধ্যমকে খুব ভালো বাসেন। তাই সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হলেই নিজের মনের যত কথা উজাড় করে দেন তিনি। আজ বৃহস্পতিবারও তার ব্যতিক্রম হল না।ক্যানিংয়ে তৃণমূল কর্মী খুন হওয়া নিয়ে তিনি বলেন, এটাই তো ওদের রেওয়াজ। এর বাড়িতে বোম ছোড়া ওই পার্টি অফিসে ভাঙচুর করা এগুলোকে চাপা দেওয়ার জন্য গভর্নরের বাড়িতে চা খেতে গেছে। আর ট্রেন্ডিং হচ্ছে অ্যারেস্ট দিলীপ ঘোষ!’ রীতিমতো হুমকি দিয়ে তিনি বলেন ‘আরে ছয় বছর তোদের বুকে পা দিয়ে রাজনীতি করেছি তোদের ঘরে ঢুকেছি গুহায় গিয়ে চমকে এসেছি, সব দম আমার জানা আছে।’

এদিন কলকাতা বিমানবন্দরে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘এর আগে অনেকবার এফআইআর হয়েছে, এতে আর কী নতুন করে বলার কি আছে? পশ্চিমবঙ্গে যত কোর্ট আছে সব জায়গায় কেস করেছে, যত থানা আছে সব জায়গায় এফ আই আর আছে। এর বেশি তৃণমূল কিছু করতে পারে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘কেউ যদি চুরি করে তাকে যদি শাস্তি না দেওয়া হয় তাহলে চুরি করাটা কি বৈধ হয়ে গেল না? সরকারের সব নেতারা চুরি করে। সবাই সব জানে। সাধারণ মানুষ পায়ে ধরে টাকা চাইছেন আবার কেউ বাড়ির সামনে ধরনা দিয়ে টাকা চাইছে।’ তিনি ফের প্রশ্ন তোলেন কেউ শাস্তি পায়নি বলে চুরিটা কি বৈধ হয়ে গেল? একজন রাজনীতিবিদ বিধায়ক যখন মানুষের মনে আঘাত দেয় তার ক্ষমা চাওয়া উচিত’।

আজ রাজভবনে তৃণমূলের প্রতিনিধি দলের যাওয়া নিয়ে তিনি বলেন, ‘কার পয়সা নিয়ে সিন্ডিকেট চালিয়েছে, কাটমানি খেয়েছে, খুন করেছে, রাজ্যপালকে দিনরাত অপমান করছে তাকে ন্যাকা বলে আজ তাইর পায়ে পড়তে গেছে।’কার্যত হুমকির ভাষায় তিনি বলেন ‘দিলীপ ঘোষ রাস্তায় আছে, পারলে পুলিশ পাঠাও। অ্যারেস্ট করো দম থাকলে। নিকম্মার দল কোন দম নেই। আমি বলছি না কুনাল ঘোষ বলছেন অর্জুন সিং বলেছেন গরু চোরের দল কয়লা চোরের দল তোমার পার্টির লোক সার্টিফিকেট দিয়েছে আমি সেটা লোককে মনে করিয়ে দিয়েছি।

আদিবাসীদের ধর্মকে স্বীকৃতি দিতে কেন্দ্রকে চিঠি লিখল রাজ্য, এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দ্রৌপদী মূর্মুকে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী করে বিজেপি তৃণমূলের মুখোশ খুলে দিয়েছে। যারা নিজেদেরকে আদিবাসী জাতির কাছের মনে করেন অথচ তাদের জন্য কাজ করেন না দ্রৌপদী মুর্মই প্রমাণ করে দেবেন মমতা ব্যানার্জি আদিবাসীদের বিপক্ষে। আদিবাসীদের শোষণ করে তাদেরকে এরকম গরিব রেখে দিয়ে রাজনীতি করছে। উনি মুখোশ খুলে দেবেন। দম থাকলে যদি আদিবাসীদের ভালবাসেন বা সম্মান করে করেন তাহলে আগে দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থন করে দেখান যে আপনারা আদিবাসীদের পক্ষে নইলে সমাজ মনে করবে আপনারা আদিবাসীদের বিরুদ্ধে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories