Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘মুসলিম মা বাচ্চার অভিভাবক নন’, কেরালা হাইকোর্ট সংবিধানের উপরে রাখল শরিয়তকে

।। প্রথম কলকাতা ।।

বুধবার ( ৬ জুলাই, ২০২২ ) কেরালা হাইকোর্ট একটি রায়ে জানিয়েছে , একজন মুসলিম মহিলা তার নাবালক সন্তান এবং সম্পত্তির অভিভাবক হতে পারেন না । পাশাপাশি সেই প্রসঙ্গে সুপ্রিমকোর্টের উদাহরণ দেওয়া হয়েছে। কোরান কিংবা হাদিসে একজন মুসলিম নারীর সন্তানের অভিভাবক হওয়ার অধিকারের ক্ষেত্রে কোন বাধা নেই। তবুও আদালত পর্যবেক্ষণ করে জানিয়েছে যে সংবিধানের ১৪১ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সুপ্রিম কোর্ট দ্বারা ব্যাখ্যা করা আইন মানতে বাধ্য হাইকোর্ট।

এই বিষয়ে বিচারপতি পিভি সুরেশ এবং বিচারপতি সিএস সুধারের বেঞ্চ জানায় , মুসলিম ব্যক্তিগত আইন অনুযায়ী মুসলিম মহিলাদের নাবালক সন্তানদের অভিভাবক হতে বাধা দেয়। যদি অপরদিকে ভারতীয় সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১৪ এবং ১৫ নিয়ে আলোচনা করা হয় সেক্ষেত্রে বিষয়টি আলাদা। কিন্তু আদালত সুপ্রিম কোর্ট দ্বারা ব্যাখ্যা করা আইন মেনে চলতে বাধ্য।

আদালত পর্যবেক্ষণ করে জানিয়েছে , আধুনিক যুগে মহিলারা বহু এগিয়ে গিয়েছেন। অনেকেই প্রায় পুরুষদের কাজের সঙ্গে সমান সমান টক্কর দেন। এছাড়াও বহু ইসলামিক দেশ কিংবা মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে নারীরা রয়েছেন। মহাকাশ মিশনে অংশগ্রহণ করছেন মহিলারা । কিন্তু মামলা যাই হোক না কেন আদালত সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তে আবদ্ধ।

আপিলকারী হাদিস উল্লেখ করে যুক্তি দেন ওই নারী তার স্বামীর সম্পত্তির অভিভাবক হিসেবে স্বীকৃত। তারা জানান কোরান কিংবা হাদিসে এমন কিছু নেই যা একজন মহিলাকে তার পুত্র বা তার সম্পত্তির অভিভাবক হতে নিষেধ করেছে। পাশাপাশি আরো জানানো হয় এই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের কোন রায়ে কখনই হাদিস বিবেচনা করা হয়নি। অপরদিকে উত্তরদাতারা জানিয়েছেন কোরাস বা হাদিস কোনোটিই বলে না যে একজন মা অভিভাবক হতে পারবেন। প্রকৃতপক্ষে কোরানের বেশ কয়েকটি আয়াত অন্যথা বলেছে। আদালত এই বিষয়ে জানায় কোরান বিশেষভাবে উল্লেখ করেনি একজন মা অভিভাবক হতে পারেন না ।

এক্ষেত্রে আদালত জানায় শরিয়ত আইন হল একমাত্র আইন যা মুসলিমদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। সেই আইনের ধারায় বর্ণিত বিষয়গুলিতে অভিভাবকত্ব বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত। মুসলিমদের ব্যক্তিগত আইন অনুযায়ী কোন মা শিশুর অভিভাবক হতে পারেন না । কিন্তু কোন শিশুর দেখাশোনার ক্ষেত্রে মা হলেন সর্বোচ্চ অধিকারী।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories