Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিদেশে পড়াশোনার পর দেশের টানে ফিরে আসুক পড়ুয়ারা, আহ্বান মুখ্যমন্ত্রীর

।। প্রথম কলকাতা।।

বৃহস্পতিবার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড বিতরণ এবং রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় সিভিল সার্ভিস প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আয়োজন করা হয় নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে । সেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বাংলায় শিক্ষার মান নিয়ে এদিন তাকে গর্ববোধ করতে দেখা যায়। তাঁর কথায়, বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে বাংলার শিক্ষার মান সিবিএসই আইসিএসই বোর্ডের শিক্ষার মান থেকে কিছু কম নয়। তাই অবশ্যই এই রাজ্যের পড়ুয়ারা ভবিষ্যতে উন্নতি করবে তাদের নিজের নিজের পথে। কিন্তু নিজেদের উন্নতি করার পরে দেশের কথা ভুলে গেলে চলবে না। এমনটাই বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি নতুন প্রজন্মের উদ্দেশ্যে বলেন, সবাই যদি বিদেশে চলে যায় তাহলে দেশে কারা থাকবে ? রাজ্যেই বা কারা থাকবে? এখানকার শিক্ষা , সংস্কৃতি ,অর্থনীতি কারা চালাবে? অবশ্যই পড়াশোনার জন্য বিদেশে যাক পড়ুয়ারা কিন্তু তারপর তাদেরকে দেশে ফিরে আসার ডাক দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁরা যেখানেই নিজেদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করতে যাক না কেন তবে পেছনে ফেলে আসা মাতৃভূমিকে যেন কখনই তাঁরা স্মৃতি থেকে মুছে না ফেলেন, সেই বার্তাই দিলেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি বলেন, ” এই মাটি তোমাকে যা দিয়েছে, যা দিতে পারে, তা অন্য কোন মাটি দিতে পারে না”।

এদিন তিনি বলেন, রাজনৈতিক কারণকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি কেন্দ্রের তরফ থেকে আর্থিকভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে রাজ্যকে। কিন্তু সেই জায়গায় রাজ্য আটকে নেই। নিজেদের প্রচেষ্টায় নিজেদের বুদ্ধি খরচ করে রাজ্যে কর্মসংস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন তাঁরা। কোনরকম কেন্দ্রের সাহায্য ছাড়াই এই কাজ চলছে। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তিনি অভিযোগ তোলেন যে, ১০০ দিন প্রকল্পের টাকা ৬ মাস ধরে বন্ধ রেখেছে কেন্দ্র অন্যদিকে ইউজিসির যে টাকা রাজ্যকে পাঠানো হতো তা পর্যন্ত পাঠানো হয়নি। কিন্তু তারপরেও কোন প্রকল্পের কাজ বন্ধ নেই বরং নতুন ভাবে কাজ তৈরি করার চেষ্টা চলছে । যাতে অন্তত কর্মসংস্থানের জন্য চিন্তা না করতে হয় নতুন প্রজন্মকে। পাশাপাশি তিনি জানান যে, রাজ্যের বিভিন্ন পলিটেকনিক এবং আইটিআই প্রতিষ্ঠানগুলিতে স্কিল ট্রেনিং দেওয়ার ব্যবস্থা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের হাতে রয়েছে প্রায় ৩০ হাজার চাকরি । সময় সুযোগ বুঝে সেই চাকরির বন্টন শুধুমাত্র বর্তমানে সময়ের অপেক্ষা।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories