Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Paschim Bardhaman: পুরীর রথের আদলেই পিতলের রথ, ৯৮ বছরে পদার্পণ রানীগঞ্জের এই ঐতিহ্য

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

আজ শুভ রথযাত্রা। যে সমস্ত জায়গায় রথযাত্রার উৎসব হয়ে থাকে সেখানে জনসমাগম শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রস্তুতিপর্ব শেষ হয়েছে। দীর্ঘ দুবছর করোনা অতিমারীর জেরে প্রায় কোনো রকম করে রথযাত্রার উৎসব পালন করা হয়েছে সর্বত্রই । তবে এবার বছর দুই পরে রথযাত্রার উৎসব নিয়ে মেতে উঠেছেন সাধারণ মানুষ। আর সেই তালিকা থেকে বাদ যায়নি পশ্চিম বর্ধমান জেলার রানীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী জমিদার বাড়ির রথ। এই রথটি পুরীর জগন্নাথ রথের আদলে তৈরি একটি পিতলের রথ। আর আজ সেখানে রথ উপলক্ষে আয়োজন করা হয়েছে বিশাল মেলার।

গ্রামবাসীদের কাছে এই প্রাচীন রথের মেলা আলাদাই আবেগ বহন করে । আর তাদের কথা মাথায় রেখেই আট দিন ব্যাপী এই মেলার আয়োজন সেখানে । জানা গিয়েছে রথের মেলায় সব রকম দোকানের পাশাপাশি বসেছে কৃষি সহায়ক নানান সামগ্রীর দোকান। যা গ্রামবাসীদের অনেক কাজে লাগবে বলে মনে করা হচ্ছে, সবমিলিয়ে এক কথায় এই রথ নিয়ে যে আনন্দের উদ্বেগ তাদের মধ্যে কাজ করে তা স্পষ্ট ধরা পড়েছে দীর্ঘ দু বছর পরে। তবে এই রথ যাত্রার সূচনা হওয়ার পেছনে একটি গল্প রয়েছে।

প্রথম থেকেই জমিদার বাড়ির রথ পিতলের ছিল না। ১৯২৫ সালের আগে পর্যন্ত রানীগঞ্জের জমিদার বাড়ির এই রথ পুরীর জগন্নাথ রথের আদলে কাঠ দিয়ে তৈরি করা হতো। আর তারপর সেই রথকে নিয়ে যাওয়া হতো নতুন রাজবাড়ি থেকে পুরনো রাজবাড়ি পর্যন্ত। তবে কোন কারনে অগ্নিসংযোগ ঘটে এবং পুড়ে ছাই হয়ে যায় রথটি। এরপরই শিয়ারসোল রাজ পরিবারের সদস্য প্রমথনাথ মালিয়া সিদ্ধান্ত নেন পিতলের রথ তৈরি করার। তিনি কলকাতার চিৎপুরের শিল্পী প্রসাদ চন্দ্র দাসকে দিয়ে এই রথ তৈরি করিয়েছিলেন। রথের কারুকার্য চোখ ধাঁধানো। চারপাশে রামায়ণ-মহাভারতের বিভিন্ন দেবদেবীর লীলা মূর্তির মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

এই রথের বিশেষত্ব হল জগন্নাথ বলরাম সুভদ্রার পাশাপাশি জমিদার বাড়ির কুলো দেবতা দামোদর চন্দ্র জিউ অধিষ্ঠিত হন একই আসনে। আগে যদিও এই রথটিকে পুরনো রাজবাড়ি থেকে নতুন রাজবাড়িতে নিয়ে আসা হতো কিন্তু বিগত কয়েক বছর ধরে ঠিক উল্টো প্রথা মানা হচ্ছে অর্থাৎ নতুন রাজবাড়ি থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে পুরনো রাজবাড়িতে। কারণ এই রথের গায়ে যে মূল্যবান মূর্তিগুলি রয়েছে সেগুলি চুরি হওয়ার সম্ভাবনা তাঁরা এড়িয়ে যেতে পারছেন না। যে কারণে রাজবাড়ির সামনেই বছরভর নজরদারি থাকে এই রথের উপরে । আর আজ জমিদার বাড়ির এই রথযাত্রাকে ঘিরে বিশাল মেলার আয়োজন সেখানে, সাজো সাজো রব গ্রামে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories