Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কেরালায় সিপিআইএমের রাজ্য দফতরে ছোঁড়া হল বোম, অভিযোগ কংগ্রেসের বিরুদ্ধে

।।প্রথম কলকাতা।।

ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল কেরালা। কিছুদিন আগেই ওয়ানাড়ে রাহুল গান্ধীর সাংসদ অফিসে তাণ্ডবের অভিযোগ উঠেছিল সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআইয়ের বিরুদ্ধে। এবার তিরুঅনন্তপুরমে সিপিআইএমের কেরালা রাজ্য দফতরে বোমা মারার অভিযোগ উঠল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। এই প্রসঙ্গে সিপিএমের কেরালা রাজ্য সম্পাদক কোডিয়ারি বালাকৃষ্ণন বলেছেন, আজ শুক্রবার রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ হবে। যদিও এ নিয়ে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত কংগ্রেসের বিবৃতি পাওয়া যায়নি।

তবে রাজনৈতিক মহল সূত্রে খবর নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা এহেন অভিযোগ কার্যত অস্বীকার করেছে কংগ্রেস। তারা কোন ভাবেই এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নয় এমনটাই শোনা যাচ্ছে। এটা সিপিএমের অন্দরমহলের ঝামেলা এমনটাই দাবি তাদের। কিন্তু সামগ্রিক পরিস্থিতি বিচার করলে দেখা যাবে যে অভিযোগ উঠছে তা সত্যি হওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট রয়েছে।

ইতিমধ্যেই এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটির তরফে গতকাল গভীর রাতে বিবৃতি জারি করা হয়েছে যেখান্র বলা হয়েছে , কংগ্রেস বোমা মেরেছে। এই ঘটনার পরেই কেরালা রাজ্য দফতরের সামনে পৌঁছয় বিরাট পুলিশ বাহিনী। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, একজন স্কুটি নিয়ে এসে দাঁড়াচ্ছে। তারপর কিছু একটা ছুড়ে দিয়ে চলে যাচ্ছে।সেই সিসিটিভি ফুটেজও সামনে এনেছে সিপিএম। যেখানে দেখা যাচ্ছে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ রাজ্য দফতর একেজি সেন্টারে বোমা মারা হয়। সিপিএম নেতা কে জয়রাজন বলেছেন, কংগ্রেসি গুন্ডারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পি কে শ্রীমতি ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি একেজি সেন্টারের তৃতীয় তলায় ছিলাম। রাত সাড়ে ১১টার দিকে একটা ভয়ানক শব্দ শুনতে পেলাম এবং গেট থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখলাম। আমি সত্যিই হতবাক হয়ে যাই। সব গণতান্ত্রিক শক্তির উচিত এমন বিপজ্জনক হামলার নিন্দা করা।’ দলের সেক্রেটারি কোডিয়েরি বালাকৃষ্ণানের অভিযোগ, এই হামলার পিছনে কংগ্রেস আছে। কিন্তু কংগ্রেস এখনও এই হামলা প্রসঙ্গে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি। কংগ্রেস বর্তমানে রাহুল গান্ধীর দুই দিনের সফর নিয়ে ব্যস্ত।

তিরুবনন্তপুরম পুলিশ কমিশনার বলেছেন, ‘আমরা একটি বিশেষ তদন্ত দল গঠন করেছি এবং তদন্ত শুরু করেছি। আমরা সমস্ত পার্টি অফিসে নিরাপত্তাও বাড়িয়ে দিয়েছি।’ এদিকে বিক্ষুব্ধ সিপিআইএম কর্মীরা অনেক জায়গায় প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে এবং কোট্টায়াম এবং কোঝিকোড়ে কংগ্রেসের জেলা কমিটির অফিসে পাথর ছুড়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories